'রাশিয়ার চেয়ে ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা বেশি শক্তিশালী'

'রাশিয়ার চেয়ে ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা বেশি শক্তিশালী'

ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ফারজাদ ইসমাইলি বলেন, ইরানি বিজ্ঞানীরা বিমান প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা নির্মাণের দিক দিয়ে উন্নত বিশ্বের কাতারে স্থান করে নিয়েছেন।

আবনা ডেস্কঃ ইরানের তরুণ বিজ্ঞানীদের উদ্যোগে সম্পূর্ণ নিজস্ব প্রযুক্তিতে তৈরি ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ‘বভার-৩৭৩’ বা ‘বিশ্বাস-৩৭৩’ রাশিয়ার এস-৩০০ ব্যবস্থার চেয়েও বেশি কার্যকর বলে জানিয়েছেন দেশটির সেনাবাহিনীর খতামুল আম্বিয়া (সা.) বিমান প্রতিরক্ষা ইউনিটের কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ফারজাদ ইসমাইলি। শুক্রবার ইরানের দক্ষিণাঞ্চলীয় খুজিস্তান প্রদেশের এক সামরিক অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা জানান। খবর পার্সটুডের।
ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ফারজাদ ইসমাইলি বলেন, ইরানি বিজ্ঞানীরা বিমান প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা নির্মাণের দিক দিয়ে উন্নত বিশ্বের কাতারে স্থান করে নিয়েছেন। অনুষ্ঠানে ইরানের এ ব্যবস্থার সঙ্গে তুলনা করার জন্য রাশিয়ায় তৈরি এস-২০০ ও এস-৩০০ ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থার নমুনা প্রদর্শন করা হয়।
ইরানে তৈরি বভার-৩৭৩ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা আকাশে চলমান যেকোনো ক্ষেপণাস্ত্র ও বিমানকে শনাক্ত করে তা ধ্বংস করতে সক্ষম। বিশেষ করে এ ব্যবস্থা সব ধরনের ব্যালিস্টিক ও ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্রসহ দূরপাল্লার যেকোনো ক্ষেপণাস্ত্র ধ্বংস করতে অত্যন্ত কার্যকর। উপরে বভার-৩৭৩ এবং নিচে রাশিয়ার এস-৩০০ ব্যবস্থা
বিশ্বের বিভিন্ন দেশে নির্মিত একই ধরনের ক্ষেপণাস্ত্রের মতো বভার-৩৭৩ ব্যবস্থায়ও রয়েছে অত্যাধুনিক রাডার, যা আগেভাগেই শত্রুর নিক্ষিপ্ত ক্ষেপণাস্ত্র বা শত্রুর জঙ্গিবিমানকে শনাক্ত করতে পারে। এরপর সেই ক্ষেপণাস্ত্র বা বিমান লক্ষ্য করে এই ব্যবস্থা থেকে ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করে আকাশেই সেগুলো ধ্বংস করা সম্ভব।


আপনার মন্তব্য প্রেরণ করুন

আপনার ই-মেইল প্রকাশিত হবে না। প্রয়োজনীয় ফিল্ডসমূহ * এর মাধ্যমে চিহ্নিত করা হয়েছে

*

quds cartoon 2018
We are All Zakzaky