সন্ত্রাসী হামলার জবাব দিল ইরান: শত্রুদেরকে অনুতপ্ত হতে হবে

সন্ত্রাসী হামলার জবাব দিল ইরান: শত্রুদেরকে অনুতপ্ত হতে হবে

ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী (আইআরজিসি)'র ক্ষেপণাস্ত্র ইউনিট সিরিয়ায় ফোরাত নদীর পূর্বাঞ্চলে সন্ত্রাসীদের ঘাঁটিতে হামলা চালিয়েছে।

আবনা ডেস্কঃ ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী (আইআরজিসি)'র ক্ষেপণাস্ত্র ইউনিট সিরিয়ায় ফোরাত নদীর পূর্বাঞ্চলে সন্ত্রাসীদের ঘাঁটিতে হামলা চালিয়েছে। কেরমানশাহ থেকে বেশ কয়েকটি ব্যালেস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ছোঁড়া হয়।
ইরানের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় আহওয়াজ শহরে সামরিক কুচকাওয়াজে হামলার সঙ্গে জড়িত সন্ত্রাসীদের কমান্ডারদের লক্ষ্য করে এ হামলা চালানো হয়। আহওয়াজে গত ২২ সেপ্টেম্বরের হামলায় ২৫ জন ইরানি নিহত ও ৬৯ জন আহত হয়। হামলার দায় স্বীকার করে বিবৃতি দিয়েছে আল-আহওয়াজিয়া ও দায়েশ। ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী এশিয়া কাপ খেলায় অংশগ্রহণকারী খেলোয়াড়দের এক সমাবেশে আহওয়াজে সন্ত্রাসী হামলার কথা উল্লেখ করে বলেছেন, এটা সেইসব কাপুরুষদের কাজ যারা ইরাক ও সিরিয়ায় কোথাও আটকে পড়লে আমেরিকা তাদেরকে উদ্ধার করছে এবং এসব সন্ত্রাসীদের পেছনে রয়েছে সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের সমর্থন। ইরানের সর্বোচ্চ নেতা বলেন, শত্রুরা এ ব্যাপারে নিশ্চিত থাকুক আহওয়াজে সন্ত্রাসী হামলার কঠিন জবাব দেয়া হবে।
সন্ত্রাসীরা ইরানের আহওয়াজে এমন সময় হামলা চালিয়েছে যখন দায়েশসহ অন্যান্য সন্ত্রাসী গোষ্ঠী ইরাক ও সিরিয়ায় চরম বিপর্যয়ের মুখে পড়েছে। সন্ত্রাসীদের সমর্থকদের ইরান বিরোধী তৎপরতার লক্ষ উদ্দেশ্যের বিষয়টি এখন সবার কাছেই স্পষ্ট। আমেরিকার ইরান বিরোধী তৎপরতার একটি অন্যতম উদ্দেশ্য হচ্ছে মধ্যপ্রাচ্যে সন্ত্রাসীদের হুমকি মোকাবেলা ও নিরাপত্তা সৃষ্টিতে ইরানের প্রচেষ্টাকে বাধাগ্রস্ত করা।
আমেরিকার মিত্র এ অঞ্চলের আরব দেশগুলো বহু বছর ধরে আল কায়দা, তালেবান ও উগ্র গোষ্ঠীগুলোর প্রতি সমর্থন দিয়ে আসছে। এর আগে তারা সাদ্দামকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করেছে। এই দেশগুলো বর্তমানে ইরানে নিরাপত্তাহীনতা সৃষ্টির জন্য সন্ত্রাসীদেরকে লেলিয়ে দিয়েছে। এ ক্ষেত্রে আমেরিকা ও দখলদার ইসরাইলের লক্ষ্য বাস্তবায়নের জন্য সৌদি আরবের বিরাট ভূমিকা রয়েছে।
ইন্ডিপেন্ডেন্ট সাময়িকীতে বলা হয়েছে, ইরানে হামলাসহ এ অঞ্চলের অন্য দেশগুলোতে চলমান সহিংসতা ও সন্ত্রাসীদের অর্থের যোগানোর পেছনে সৌদি আরবের হাত রয়েছে। ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাওয়াদ জারিফ সিএনএনকে দেয়া সাক্ষাতকারে মধ্যপ্রাচ্যে নিরাপত্তাহীনতা সৃষ্টিতে সৌদি আরবের ধ্বংসাত্মক ভূমিকার কথা উল্লেখ করে বলেছেন, "সৌদি আরব ইরানে সন্ত্রাসী হামলা চালানোর শর্তে সন্ত্রাসীদেরকে বিপুল অর্থ দিয়েছে। তিনি বলেন, "সৌদি যুবরাজ আজ থেকে প্রায় দেড় বছর আগে ইরানের অভ্যন্তরেও যুদ্ধ ও সহিংসতা ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিয়েছিলেন।"
যাইহোক, শত্রুদের এটা বোঝা উচিত ইরান যেকোনো নাশকতার কঠিন ও দাঁতভাঙা জবাব দেবে এবং তাদেরকে অনুতপ্ত হতে হবে। আহওয়াজে সন্ত্রাসী হামলার জবাবে আইআরজিসি সিরিয়ায় সন্ত্রাসীদের অবস্থানে ছয়টি ক্ষেপণাস্ত্র ছুঁড়েছে।#


আপনার মন্তব্য প্রেরণ করুন

আপনার ই-মেইল প্রকাশিত হবে না। প্রয়োজনীয় ফিল্ডসমূহ * এর মাধ্যমে চিহ্নিত করা হয়েছে

*

Arba'een
Mourining of Imam Hossein
Pesan Haji 2018 Ayatullah Al-Udzma Sayid Ali Khamenei
We are All Zakzaky