‘রোহিঙ্গাদের সাধ্যমতো সহযোগিতা করছে সরকার’

‘রোহিঙ্গাদের সাধ্যমতো সহযোগিতা করছে সরকার’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, মিয়ানমার থেকে আসা রোহিঙ্গা শরণার্থীদের সরকার সাধ্যমতো সহযোগিতা করার চেষ্টা করছে। পাশাপাশি মিয়ানমার সরকারকে তাদের দেশের নাগরিকদের ফিরিয়ে নেয়ার জন্য চাপ সৃষ্টি করা হচ্ছে।

আবনা ডেস্কঃ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, মিয়ানমার থেকে আসা রোহিঙ্গা শরণার্থীদের সরকার সাধ্যমতো সহযোগিতা করার চেষ্টা করছে। পাশাপাশি মিয়ানমার সরকারকে তাদের দেশের নাগরিকদের ফিরিয়ে নেয়ার জন্য চাপ সৃষ্টি করা হচ্ছে। বৃহস্পতিবার রাতে গণভবনে আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সংসদের বৈঠকে সূচনা বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে সরকারের পদক্ষেপের কথা উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, মিয়ানমার থেকে অনেক রিফিউজি আসছে। ১৯৭৮ সাল থেকে এ রিফিউজি ঢুকছে। আমাদের রেজিস্ট্রার্ড যা আছে তার থেকে আন রেজিস্ট্রার্ড বেশি। মিয়ানমারে একটা ঘটনা ঘটলে সেখান থেকে লোক চলে আসে। সব থেকে মানবেতর অবস্থা নারী ও শিশুরা যেভাবে কষ্ট পাচ্ছে। নৌকাডুবিতে শিশুরা মারা যাচ্ছে। এটা সত্যি খুব কষ্টের। সহ্য করা যায় না। আমরা দেখেছি ঘটনাগুলো ঘটে যাচ্ছে। এভাবে মানুষ সর্বস্ব হারিয়ে আসছে। আমরা সাধ্যমতো চেষ্টা করছি তাদের সহযোগিতা করতে। প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, মিয়ানমার সরকারকেও চাপ দিচ্ছি যে, তারা তাদের দেশের মানুষ। যারা আমাদের দেশে আছে তাদের যেন ফিরিয়ে নিয়ে যায়। সেটাই আমরা চাই। এরা তাদেরই দেশের নাগরিক। তারা কেন আজকে অন্য দেশে রিফিউজি হয়ে থাকবে? কোনো দেশের মানুষ যদি আরেক দেশে রিফিউজি হয়ে থাকে সেই দেশের জন্য এটা সম্মানজনক নয়। এটা মিয়ানমারকে উপলব্ধি করতে হবে। সেখানকার মানুষ যারা আমাদের দেশে চলে এসে আশ্রয় চাচ্ছে তাদেরকে নিরাপত্তা দেয়া উচিত, ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়া উচিত। তাদের জীবন-জীবিকার ব্যবস্থা করে দেয়া উচিত বলে আমি মনে করি। সন্ত্রাসী কর্মকা- বিএনপি-জামায়াতের চরিত্র উল্লেখ করে বিএনপির উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী বলেন, অবাক লাগে যখন নির্বাচন নিয়ে কথা বলে। আর তারা ফ্রি ফেয়ার ইলেকশন নিয়ে কথা বলে। আর তারা অভিযোগ তোলে। আমার মনে হয় তাদের চেহারা আয়নায় দেখা উচিত। নির্বাচন প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, যথাসময়ে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অবশ্যই হবে। এবং সেটা আমরাই এনশিওর করি, ইলেকশন কমিশন স্বাধীনভাবে ইলেকশন পরিচালনা করে। এটা নিয়ে অহেতুক পানি ঘোলার চেষ্টা করা আর সংবিধান লঙ্ঘন করে অন্য কিছু চিন্তা-ভাবনা করা, এই চিন্তা এখন বাংলাদেশে করার আর সময় নাই, সুযোগ নাই। এসময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সজাগ আছে বলে আমরা মানুষের জীবনের নিরাপত্তা দিতে পেরেছি। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকুক বা না থাকুক বন্যার্তদের পাশে দাঁড়িয়েছে।


আপনার মন্তব্য প্রেরণ করুন

আপনার ই-মেইল প্রকাশিত হবে না। প্রয়োজনীয় ফিল্ডসমূহ * এর মাধ্যমে চিহ্নিত করা হয়েছে

*

quds cartoon 2018
پیام امام خامنه ای به مسلمانان جهان به مناسبت حج 2016
We are All Zakzaky