ইরানি জাতিকে বিভক্ত করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে আমেরিকা: সর্বোচ্চ নেতা

ইরানি জাতিকে বিভক্ত করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে আমেরিকা: সর্বোচ্চ নেতা

সর্বোচ্চ নেতা বলেন, দেশের চলমান শাসনব্যবস্থা এবং জনগনের মধ্যে দুরত্ব সৃষ্টির মাধ্যমে একে অপরকে বিচ্ছিন্ন করার পরিকল্পনা করছে আমেরিকা।

আবনা ডেস্কঃ ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী বলেছেন, ইরানি জাতি এবং সরকারের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টির লক্ষ্যে তার দেশের ওপর অর্থনৈতিক চাপ বৃদ্ধির সর্বাত্মক চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে আমেরিকা। কিন্তু শত্রুর এ চেষ্টা ব্যর্থ হবে।
সর্বোচ্চ নেতা বলেন, দেশের চলমান শাসনব্যবস্থা এবং জনগনের মধ্যে দুরত্ব সৃষ্টির মাধ্যমে একে অপরকে বিচ্ছিন্ন করার পরিকল্পনা করছে আমেরিকা। এর মাধ্যমে তাদের বোকামির চিত্র ফুটে উঠেছে। কারণ তারা জানে না যে ইসলামি প্রজাতন্ত্রই হচ্ছে ইরানি জাতি এবং এ দু'টিকে একে অপর থেকে আলাদা করা কোনোভাবেই সম্ভব নয়।
আজ (শনিবার) তেহরানের ইমাম হোসেইন (আ) বিশ্ববিদ্যালয়ে ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসির নতুন ক্যাডেটদের সমাবর্তন অনুষ্ঠানে দেয়া বক্তব্যে আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী এ কথা বলেন। তিনি এমন সময় এ মন্তব্য করলেন যখন ইরানের ওপর ইতিহাসের কঠোরতম অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপের হুমকি দিয়েছে ওয়াশিংটন।
আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী বলেন, "চলমান অর্থনৈতিক চাপ বৃদ্ধির উদ্দেশ্যে হচ্ছে ইসলামি শাসন ব্যবস্থার প্রতি ইরানি জনগণের মধ্যে চরম হতাশা এবং বিরক্তিকর মনোভাব সৃষ্টি করা। কিন্তু সর্বশক্তিমান আল্লাহর রহমতে আমরা দিনদিন আমাদের জনগণের সঙ্গে সম্পর্ক আরো বাড়াতে থাকব এবং নিজেদের মধ্যে ইস্পাত দৃঢ় ঐক্য বজায় রেখে আমাদের বিশ্বাসী এবং অটুট মনোবলের অধিকারী যুব সমাজকে আরো শক্তিশালী করে গড়ে তুলব।"


আপনার মন্তব্য প্রেরণ করুন

আপনার ই-মেইল প্রকাশিত হবে না। প্রয়োজনীয় ফিল্ডসমূহ * এর মাধ্যমে চিহ্নিত করা হয়েছে

*

quds cartoon 2018
پیام امام خامنه ای به مسلمانان جهان به مناسبت حج 2016
We are All Zakzaky