গুয়েতেমালার সিদ্ধান্ত বেআইনি ও লজ্জাজনক: ফিলিস্তিন

গুয়েতেমালার সিদ্ধান্ত বেআইনি ও লজ্জাজনক: ফিলিস্তিন

মুসলমানদের তৃতীয় পবিত্রতম স্থান বায়তুল মুকাদ্দাস বা জেরুজালেমে দূতাবাস স্থানান্তরের সিদ্ধান্ত নেয়ায় গুয়েতেমালার সমালোচনা করেছে ফিলিস্তিন।

আবনা ডেস্কঃ মুসলমানদের তৃতীয় পবিত্রতম স্থান বায়তুল মুকাদ্দাস বা জেরুজালেমে দূতাবাস স্থানান্তরের সিদ্ধান্ত নেয়ায় গুয়েতেমালার সমালোচনা করেছে ফিলিস্তিন। ফিলিস্তিনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলেছে, গুয়েতেমালা যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে তা বেআইনি এবং তা দেশটির জন্য লজ্জাজনক। একইসঙ্গে সিদ্ধান্ত বাতিলের আহ্বান জানিয়েছে ফিলিস্তিন।
ফিলিস্তিনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আরও বলেছে, গুয়েতেমালার প্রেসিডেন্ট জিমি মোরালেস যে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তা বায়তুল মুকাদ্দাসের খ্রিষ্টানদের স্বার্থেরও পরিপন্থী। এর মাধ্যমে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে পাস হওয়া প্রস্তাবকেও লঙ্ঘন করা হচ্ছে।
গত রোববার গুয়েতেমালার প্রেসিডেন্ট জিমি মোরালেস ইসরাইলের যুদ্ধবাজ প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর সঙ্গে টেলিফোন সংলাপের পর দূতাবাস তেল আবিব থেকে জেরুজালেমে সরিয়ে নেয়ার ঘোষণা দেন। তিনি বলেছেন, “আমি আপনাদেরকে জানাচ্ছি যে, এ সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের জন্য পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দিয়েছি।”
গত বৃহস্পতিবার জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে ১২৮টি দেশ মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সিদ্ধান্তকে বাতিলের দাবিতে তোলা প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দেয়ার তিনদিন পর গুয়েতেমালা এ সিদ্ধান্ত ঘোষণা করে। ওই প্রস্তাবের বিপক্ষে আমেরিকা ও ইসরাইলসহ নয়টি দেশ ভোট দেয়।
গুয়েতেমালা এই নয়টি দেশের মধ্যে ছিল এবং মধ্য আমেরিকার এ দেশটি প্রধানত মার্কিন অর্থ সাহায্যের ওপর ভর করে চলে। জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ভোটের আগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট হুমকি দিয়েছিলেন, যেসব দেশ আমেরিকার বিরুদ্ধে ভোট দেবে তাদের বিরুদ্ধে অর্থনৈতিক সাহায্য বাতিলসহ নানা ব্যবস্থা নেয়া হবে।#


আপনার মন্তব্য প্রেরণ করুন

আপনার ই-মেইল প্রকাশিত হবে না। প্রয়োজনীয় ফিল্ডসমূহ * এর মাধ্যমে চিহ্নিত করা হয়েছে

*

پیام امام خامنه ای به مسلمانان جهان به مناسبت حج 2016
We are All Zakzaky
telegram