ফিলিস্তিনিদের নতুন অস্ত্র ঘুড়ি ; আতঙ্কিত ইসরাইলিরা (ছবি)

বিগত দুই সপ্তাহ ধরে ইসরাইল বিরোধী বিক্ষোভ মিছিলের পাশাপাশি অভিনব এক পদ্ধতি ব্যবহার শুরু করেছে ফিলিস্তিনি যুবকেরা। ঘুড়ির লেজে পেট্রোলবোমা বেঁধে তা দখলকৃত ভুখণ্ডের উদ্দেশ্যে ছেড়ে দিচ্ছে তারা।

হলে বাইত (আ.) বার্তা সংস্থা (আবনা): ‘সব ক্ষেত্রে কোন না কোন উপায় বের হয়ে আসে’ কথাটি ফিলিস্তিনি যুবকদের বেলায় একেবারে খেটে যায়। অসহায় এ যুবকেরা প্রতিদিন জায়নবাদী সরকার এবং তাদের কথিত অপরাজেয় সেনাবাহিনীর মোকাবেলায় নতুন নতুন পদ্ধতি অবলম্বন করছে।

এবার খেলার ঘুড়ি ব্যবহার করে জায়নবাদী ইসরাইলের নিরাপত্তা হুমকির মুখে ফেলেছে ফিলিস্তিনি যুবকেরা। কাগজের ঘুড়ি বানিয়ে তা দখলকৃত ভূখণ্ডের দিকে ছেড়ে দেয়ার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগের বিভিন্ন ওয়েব সাইটে প্রকাশ করেছে তারা।

বিগত দুই সপ্তাহ ধরে ইসরাইল বিরোধী বিক্ষোভ মিছিলের পাশাপাশি অভিনব এক পদ্ধতি ব্যবহার শুরু করেছে ফিলিস্তিনী যুবকেরা। ঘুড়ির লেজে পেট্রোলবোমা বেঁধে তা দখলকৃত ভুখণ্ডের উদ্দেশ্যে ছেড়ে দিচ্ছে তারা।

ফিলিস্তিনি যুবকদের একটি দল এ সকল ঘুড়ি উড়িয়ে ইসরাইলের দখলে থাকা গাজার পূর্বাঞ্চলীয় এলাকার কৃষিক্ষেত্রগুলোতে আগুন লাগানোর চেষ্টা চালিয়েছে।

এদিকে, অনলাইনে ভিডিও প্রকাশ করে এ ধরনের ঘুড়ি ব্যবহারের গণডাক দিয়েছে ঐ যুবকদের একটি দল।

সামরিক বিষয়ক বিশেষজ্ঞ ‘ইউসুফ শারকাউই’ জানিয়েছেন, ঘুড়িগুলো ইহুদি বসতিতে বসবাসরত ইহুদি ও গাজার পার্শ্ববর্তী বসতিগুলোর জনগণ ও কর্মকর্তাদের মনে আতঙ্ক ছড়াতে সক্ষম হয়েছে।

শারকাউই-এর মতে, এ পদক্ষেপের মাধ্যমে জায়নবাদী ইসরাইলকে নিজেদের বার্তা পৌঁছাতে সক্ষম হয়েছে যুবকেরা।

গতকাল (বৃস্পতিবার, ১৯ এপ্রিল) আশকুল অঞ্চলের পরিষদের এক বিজ্ঞপ্তিতে ইহুদি বসতির বাসিন্দাদের উদ্দেশ্যে, ফিলিস্তিনীদের ছেড়ে দেওয়া ঘুড়ির আগুনের বিষয়ে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করতে বলা হয়েছে। ঐ পরিষদ আরো জানিয়েছে, গত ২৪ ঘন্টায় দখলকৃত অঞ্চলে পেট্রোলবোমা বাহী কয়েকটি ঘুড়ি এসে পড়েছে।

পরিষদের ঐ বিজ্ঞপ্তিতে, যেকোন ধরনের অস্বাভাবিক আগুন দেখামাত্রই কর্তৃপক্ষকে অবগত করার বিষয়ে তাগিদ করা হয়েছে।#


সম্পর্কিত প্রবন্ধসমূহ

আপনার মন্তব্য প্রেরণ করুন

আপনার ই-মেইল প্রকাশিত হবে না। প্রয়োজনীয় ফিল্ডসমূহ * এর মাধ্যমে চিহ্নিত করা হয়েছে

*

Pesan Haji 2018 Ayatullah Al-Udzma Sayid Ali Khamenei
We are All Zakzaky