ফিলিস্তিনে সশস্ত্র সংগ্রামের প্রতি সমর্থন বেড়েছে: জরিপ

ফিলিস্তিনে সশস্ত্র সংগ্রামের প্রতি সমর্থন বেড়েছে: জরিপ

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প পবিত্র বায়তুল মুকাদ্দাস শহরকে ইহুদিবাদী ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেয়ার পর ফিলিস্তিনি জনগণের মধ্যে সশস্ত্র সংগ্রামের প্রতি সমর্থন বেড়েছে।

আবনা ডেস্কঃ মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প পবিত্র বায়তুল মুকাদ্দাস শহরকে ইহুদিবাদী ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেয়ার পর ফিলিস্তিনি জনগণের মধ্যে সশস্ত্র সংগ্রামের প্রতি সমর্থন বেড়েছে। নতুন এক জনমত জরিপে দেখা গেছে- আগের চেয়ে বেশি ফিলিস্তিনি এখন ইসরাইলের বিরুদ্ধে সশস্ত্র সংগ্রাম করাকে পছন্দ করেন।
ফিলিস্তিন ও ইসরাইলে যৌথভাবে এ জরিপ চালানো হয়েছে এবং গতকাল (বৃহস্পতিবার) জরিপের ফলাফল প্রকাশ করা হয়। প্যালেস্টাইনিয়ান সেন্টার ফর পলিসি অ্যান্ড সার্ভে রিসার্চ এবং তেল আবিব বিশ্ববিদ্যালয়ের তামি স্টেইনমেৎজ সেন্টার থেকে যৌথভাবে অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকা, পূর্ব বায়তুল মুকাদ্দাস এবং পশ্চিম তীরে মোট ১,২৭০ জনের মধ্যে এ জরিপ চালানো হয়। এতে দেখা যাচ্ছে-শতকরা ৩৮.৪ ভাগ অংশগ্রহণকারী ইহুদিবাদী ইসরাইলের বিরুদ্ধে সশস্ত্র সংগ্রামকে বেছে নেয়ার পক্ষে মত দিয়েছেন। অন্যদিকে মাত্র শতকরা ২৬.২ ভাগ মানুষ ইসরাইলের সঙ্গে একটি চুক্তিতে পৌঁছানোর কথা বলেছেন।
এর আগে গত জুন মাসে একই বিষয়ে জরিপ চালানো হয়েছিল এবং তখন সশস্ত্র সংগ্রামের পক্ষে মাত্র শতকরা ২১ ভাগ ও কথিত শান্তি চুক্তির পক্ষে শতকরা ৪৫ ভাগ মানুষ মত দিয়েছিলেন।
গত ৬ ডিসেম্বর মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বায়তুল মুকাদ্দাস শহরকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেন। এতে সারা বিশ্বে সমালোচনার ঝড় ওঠে এবং ফিলিস্তিনি জনগণ ইসরাইল ও মার্কিন বিরোধী আন্দোলনে ফুঁসে ওঠেন। এ পর্যন্ত প্রায় ২৫ জন ফিলিস্তিনি ইহুদিবাদী ইসরাইলিদের হাতে শহীদ হয়েছেন।#


আপনার মন্তব্য প্রেরণ করুন

আপনার ই-মেইল প্রকাশিত হবে না। প্রয়োজনীয় ফিল্ডসমূহ * এর মাধ্যমে চিহ্নিত করা হয়েছে

*

Arba'een
Mourining of Imam Hossein
Pesan Haji 2018 Ayatullah Al-Udzma Sayid Ali Khamenei
We are All Zakzaky