ইরাকে মার্কিন সেনার প্রয়োজন নেই: হাশ্‌দ আশ-শাবি

ইরাকে মার্কিন সেনার প্রয়োজন নেই: হাশ্‌দ আশ-শাবি

ইরাকে বর্তমানে কত সেনা অবস্থান করছে তার প্রকৃত সংখ্যা প্রকাশ করতে ইরাক সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে হাশ্দ আশ-শাবি।

আবনা ডেস্কঃ ইরাকের জনপ্রিয় স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন হাশ্‌দ আশ-শাবি বলেছে, উগ্র সন্ত্রাসী গোষ্ঠী দায়েশের পতন হয়েছে এবং এখন আর কোনো অজুহাতে ইরাকে মার্কিন সেনাদের উপস্থিতির প্রয়োজন নেই।
ইরানের ইংরেজি ভাষার টেলিভিশন চ্যানেল প্রেস টিভিকে দেয়া সাক্ষাৎকারে হাশ্‌দ আশ-শাবির কমান্ডার হাদি আল-আমেরি একথা বলেছেন। ইরাকে বর্তমানে কত সেনা অবস্থান করছে তার প্রকৃত সংখ্যা প্রকাশ করতে ইরাক সরকারের প্রতি তিনি আহ্বান জানান।
কমান্ডার আমেরি বলেন, "আমরা বলি যে, বাগদাদ সরকারের অনুরোধে আমেরিকা ইরাকে সেনা পাঠিয়েছে। অথচ আমরা এখনো পরিষ্কার নই যে, ইরাকে আমেরিকার কত সেনা মোতায়েন করা হয়েছে।" তিনি জোর দিয়ে বলেন, ইরাকের অভ্যন্তরে হস্তক্ষেপ করার কোনো সুযোগ দেবে না হাশ্‌দ আশ-শাবি।
ইরাকের এ কমান্ডার আরো বলেন, "আমরা আশা করি ইরাকে কত সেনা থাকা উচিত তা পরিষ্কার করবে সরকার এবং বাকি সেনাদের দেশ থেকে চলে যাওয়ার কথা বলবে।"
সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের নামে ২০০৩ সালে সর্বপ্রথম ইরাকে সামরিক আগ্রাসন চালায় আমেরিকা এবং দীর্ঘদিন ধরে সেনা মোতায়েন রাখে। এরপর ২০১৪ সালে সন্ত্রাসী গোষ্ঠী দায়েশ ইরাকে সহিংসতা শুরু করলে একই অজুহাতে আমেরিকা আবারো সেনা পাঠায়। কিন্তু ইরাকে দায়েশ-বিরোধী লড়াইয়ে আমেরিকার তেমন কোনো উল্লেখযোগ্য তৎপরতা চোখে পড়ে নি।#


আপনার মন্তব্য প্রেরণ করুন

আপনার ই-মেইল প্রকাশিত হবে না। প্রয়োজনীয় ফিল্ডসমূহ * এর মাধ্যমে চিহ্নিত করা হয়েছে

*

پیام امام خامنه ای به مسلمانان جهان به مناسبت حج 2016
We are All Zakzaky