ইয়েমেন নিয়ে কোটি কোটি ডলার অস্ত্র বাণিজ্যে যুক্তরাষ্ট্র-ব্রিটেন

ইয়েমেন নিয়ে কোটি কোটি ডলার অস্ত্র বাণিজ্যে যুক্তরাষ্ট্র-ব্রিটেন

জারিফ বলেন, মধ্যপ্রাচ্যে অস্থিতিশীলতা সৃষ্টির জন্য মার্কিন কর্মকর্তারা ইরানকে অভিযুক্ত করার মাধ্যমে এলে এ অঞ্চলে ইরানভীতি ছড়িয়ে দেয়ার চেষ্টা করছে।

আবনা ডেস্কঃ মধ্যপ্রাচ্যের যেসব নেতাদের কাছে যুক্তরাষ্ট্র অস্ত্র সরবরাহ করছে তারা ভয়াবহ যুদ্ধাপরাধে জড়িত বলে মন্তব্য করেছেন ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মুহাম্মদ জাওয়াদ জারিফ। বুধবার এক টুইটবার্তায় জারিফ বলেন, যুক্তরাষ্ট্র যে পরিমাণে অস্ত্র বিক্রি করে তার অর্ধেকের বেশি বিক্রি করে থাকে মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর কাছে। আর এসব অস্ত্রের সিংহভাগ পৌঁছে যাচ্ছে সেসব আগ্রাসী ও অনভিজ্ঞ নেতাদের কাছে যারা মারাত্মক যুদ্ধাপরাধে জড়িত। খবর রেডিও তেহরানের।
জারিফ বলেন, মধ্যপ্রাচ্যে অস্থিতিশীলতা সৃষ্টির জন্য মার্কিন কর্মকর্তারা ইরানকে অভিযুক্ত করার মাধ্যমে এলে এ অঞ্চলে ইরানভীতি ছড়িয়ে দেয়ার চেষ্টা করছে। আর এভাবে তারা সৌদি আরবের কাছে অস্ত্র বিক্রি করে কোটি কোটি ডলার হাতিয়ে নিচ্ছে।
প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব নেয়ার পরপরই ডোনাল্ড ট্রাম্প তার প্রথম বিদেশ সফরের জন্য সৌদি আরবকে বেছে নিয়েছিলেন। তিনি ইয়েমেনে আগ্রাসনকারী সৌদি নেতাদের সঙ্গে তলোয়ার নাচে অংশগ্রহণের পাশাপাশি দেশটির কাছে ১১ হাজার কোটি ডলার মূল্যের অস্ত্র বিক্রির চুক্তি সই করেছেন।
এদিকে সৌদি যুবরাজ মুহাম্মদ বিন সালমানও জনগণের বিরোধিতাকে উপেক্ষা করে গত শুক্রবার ব্রিটেন সফরে গিয়ে সামরিক চুক্তি সই করেছেন। ওই চুক্তি অনুযায়ী ৪৮টি ইউরো ফাইটার টাইফুন যুদ্ধবিমান কিনবে সৌদি আরব। মধ্যপ্রাচ্যে অব্যাহত যুদ্ধ ও নিরাপত্তাহীনতা ব্রিটেনের অস্ত্র নির্মাণ কারখানাগুলোকে বাঁচিয়ে রেখেছে এবং দেশটির অর্থনীতির চাকাও সচল রয়েছে।
যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক প্রতিষ্ঠান 'এন্টি ওয়ার' এক প্রতিবেদনে ইয়েমেনে মানবীয় বিপর্যয় সৃষ্টি এবং যুদ্ধাপরাধের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্র অংশগ্রহণের পরিণতির ব্যাপারে উদ্বেগ প্রকাশ করে লিখেছে, ইয়েমেনে সৌদি আগ্রাসন শুরুর পর তিন বছর অতিক্রান্ত হতে চলল কিন্তু বিমান হামলা চালিয়ে বেসামরিক মানুষ হত্যাকাণ্ড বন্ধ হয়নি। ইয়েমেনে গণহত্যা চলার একই সময়ে সৌদি আরব ও আমিরাতকে অস্ত্র দিয়ে সজ্জিত করছে যুক্তরাষ্ট্র। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের দেয়া অস্ত্র ব্যবহার করে সৌদি আরব ইয়েমেনের জনগণকে হত্যা করছে।
এদিকে যুক্তরাষ্ট্র ছাড়াও ব্রিটেনও ইয়েমেনে সৌদি আগ্রাসনের প্রতি পূর্ণ সমর্থন দিয়ে যাচ্ছে। ইয়েমেনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, সৌদি আরবের কাছে অত্যাধুনিক টাইফুন যুদ্ধবিমান বিক্রি করার অর্থ হচ্ছে সৌদি আগ্রাসনের প্রতি সমর্থন জানানো।


আপনার মন্তব্য প্রেরণ করুন

আপনার ই-মেইল প্রকাশিত হবে না। প্রয়োজনীয় ফিল্ডসমূহ * এর মাধ্যমে চিহ্নিত করা হয়েছে

*

Mourining of Imam Hossein
Pesan Haji 2018 Ayatullah Al-Udzma Sayid Ali Khamenei
We are All Zakzaky