কেন পাল্টে গেলো তুরস্কের নীতি?

কেন পাল্টে গেলো তুরস্কের নীতি?

ইরানের উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইব্রাহিম রাহিমপুর বলেছেন, আঞ্চলিক ক্ষেত্রে নানা পরিবর্তন এবং মার্কিন প্রেসিডেন্ট পদে নতুন মুখ আসায় তুরস্কের মধ্যপ্রাচ্য নীতি পাল্টে গেছে। ইরানের টিভি চ্যানেল-টু'র সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে তিনি এ কথা বলেছেন।

আবনা ডেস্কঃ ইরানের উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইব্রাহিম রাহিমপুর বলেছেন, আঞ্চলিক ক্ষেত্রে নানা পরিবর্তন এবং মার্কিন প্রেসিডেন্ট পদে নতুন মুখ আসায় তুরস্কের মধ্যপ্রাচ্য নীতি পাল্টে গেছে। ইরানের টিভি চ্যানেল-টু'র সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে তিনি এ কথা বলেছেন।
রাহিমপুর বিষয়টিকে আরও ব্যাখ্যা করে বলেন, সিরিয়ার নানা ঘটনাবলী, সন্ত্রাসী গোষ্ঠী দায়েশের পরাজয়, কাতার ও সৌদি আরবের মধ্যে বিরোধ এবং আমেরিকার প্রেসিডেন্ট হিসেবে ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিজয় তুরস্কের আচরণে পরিবর্তন এনেছে।
গতকাল (বুধবার) ইরানের প্রেসিডেন্ট ড. হাসান রুহানি ও তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এর্দোগানের মধ্যে নজিরবিহীন বৈঠক হয়েছে বলে তিনি জানান। রাহিমপুর বলেন, দুই দেশের অভিন্ন সীমান্তে ২৪ ঘন্টা কর্মতৎপরতা এবং ব্যাংকিং খাতে সমঝোতার মতো অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে সহযোগিতা আরও বৃদ্ধির জন্য দুই নেতা একমত হয়েছেন। এছাড়া দুই নেতা সিরিয়া, ইরাক ও কুর্দিস্তানের গণভোট নিয়ে মতবিনিময় করেছেন। ইরান মনে করে, ইরাকের বিষয়েও কোনো বিদেশি শক্তিকে সিদ্ধান্ত গ্রহণের সুযোগ দেওয়া ঠিক হবে না। দেশটির অখণ্ডতা রক্ষা করতে হবে।
রাহিমপুর বলেন, ইরান ও তুরস্কের মধ্যে সম্পর্ক ঘনিষ্ঠ হওয়ার একটি কারণ হলো ইরাকের কুর্দিস্তানের গণভোট। ইরান, তুরস্ক ও ইরাকের মধ্যে মতৈক্যের কারণে কুর্দিরা তাদের জন্য নির্ধারণ করে দেওয়া পথ পরিবর্তন করতে বাধ্য হবে।
ইরাক সরকারসহ গোটা বিশ্বের বিরোধিতা সত্ত্বেও কুর্দি নেতা মাসুদ বারজানির ব্যক্তিগত ইচ্ছার কারণে গত ২৫ সেপ্টেম্বর কুর্দিস্তানে গণভোট অনুষ্ঠিত হয়েছে।#


আপনার মন্তব্য প্রেরণ করুন

আপনার ই-মেইল প্রকাশিত হবে না। প্রয়োজনীয় ফিল্ডসমূহ * এর মাধ্যমে চিহ্নিত করা হয়েছে

*

پیام امام خامنه ای به مسلمانان جهان به مناسبت حج 2016
We are All Zakzaky
telegram