ফিলিস্তিনে ট্রাম্প ও পেন্সের প্রতীকী বিচার সম্পন্ন

ফিলিস্তিনে ট্রাম্প ও পেন্সের প্রতীকী বিচার সম্পন্ন

ফিলিস্তিনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সের প্রতীকী বিচার অনুষ্ঠিত হয়েছে। জর্দান নদীর পশ্চিম তীরের দক্ষিণে আইদা শরণার্থী শিবিরের অধিবাসীরা এ বিচারের আয়োজন করে।

বিচারকরা তাদের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ শাস্তির রায় দেন। বিচার শেষে ট্রাম্প ও পেন্সের কুশপুত্তলিক পোড়ানো হয়। প্রতিকী বিচার ও কুশপুত্তলিক পোড়ানোর ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে ছড়িয়ে পড়েছে। অনেকেই এ পদক্ষেপের প্রশংসা করে মন্তব্য করেছেন। কেউ কেউ লিখেছেন, সম্ভব হলে ওদেরকে এরচেয়ে বড় শাস্তি দেয়া উচিত।

মুসলমানদের তৃতীয় পবিত্র স্থান বায়তুল মুকাদ্দাসকে ইহুদিবাদী ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে ঘোষণার অপরাধে ট্রাম্প ও পেন্সের বিরুদ্ধে এ প্রতীকী বিচারের আয়োজন করা হয়।

মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সও সম্প্রতি ইহুদিবাদী ইসরাইল সফরে গিয়ে ট্রাম্পের সিদ্ধান্তের প্রতি সমর্থন ঘোষণা করেন। তিনি বলেছেন, বায়তুল মুকাদ্দাসকে রাজধানী ঘোষণার মাধ্যমে সঠিক কাজটিই করেছেন ট্রাম্প।
.............
300


আপনার মন্তব্য প্রেরণ করুন

আপনার ই-মেইল প্রকাশিত হবে না। প্রয়োজনীয় ফিল্ডসমূহ * এর মাধ্যমে চিহ্নিত করা হয়েছে

*

پیام امام خامنه ای به مسلمانان جهان به مناسبت حج 2016
We are All Zakzaky