যশোরে পবিত্র আশুরা উপলক্ষে শোক মজলিশ ও মিছিল

পবিত্র আশুরা উপলক্ষে যশোরে শোক মিছিলের আয়োজিত করা হয়। মিছিলটি শহরের ঈদগাহ হতে শুরু হয়ে দানবীর হাজী মুহাম্মাদ মহ্সীন কর্তৃক নির্মিত ঐতিহাসিক মুড়লী ইমামবাড়ী এসে শেষ হয়।

আহলে বাইত (আ.) বার্তা সংস্থা (আবনা): পবিত্র আশুরা উপলক্ষে দানবীর হাজী মুহাম্মাদ মহ্সীন ইমামবাড়ী কার্যকরী সমন্বয় পরিষদের উদ্যোগে এ শোক মজলিশ ও মিছিলের আয়োজন করা হয়। এতে বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আহলে বাইত (আ.) এর ভক্তরা অংশগ্রহণ করেন। মিছিলটি শহরের ঈদগাহ হতে শুরু হয়ে দানবীর হাজী মুহাম্মাদ মহ্সীন কর্তৃক নির্মিত ঐতিহাসিক মুড়লী ইমামবাড়ী এসে শেষ হয়।

শোক মিছিল শেষে অনুষ্ঠিত শোক সভায় বক্তব্য রাখেন কমিটির সভাপতি মোঃ এহতেশাম-উল-আলম প্রতীক, সাধারণ সম্পাদক মোঃ সিরাজুল ইসলাম, মুড়লী ইমাম বাড়ীর পেশ ইমাম জনাব ইকবাল হুসাইন এবং যশোরের বিশিষ্ট আলেমহুজ্জাতুল ইসলাম মাওলানা মিজানুর রহমান প্রমূখ।

বক্তারা বলেন, ইমাম হুসাইন (আঃ) ও তাঁর পরিবার এবং সঙ্গী সাথীদেরকে ৬১ হিজরীতে কারবালা প্রান্তরে আবু সুফিয়ানের পুত্র মুয়াবিয়ার কুলাঙ্গার সন্তান ইয়াজিদের নির্দেশে নিষ্ঠুর ও নির্মম ভাবে হত্যা করা হয়। ইয়াজীদের নির্দেশ ছিল যেন ইমাম হুসাইন (আঃ) এর কাছ থেকে তার পক্ষে বাইয়াত নেয়া হয়। কিন্তু ইমাম হুসাইন (আ.) সত্যের মাথাকে সমুন্নত রাখতে বাতিলের সামনে মাথা নত করেননি। আর তাই কারবালা প্রান্তরে এমন নজীরবিহীন আত্মত্যাগের সিদ্ধান্ত নেন তিন। যার মাধ্যমে তিনি তাঁর নানার সুন্নতকে প্রতিষ্ঠা করতে চেয়েছিলেন এবং সৎকাজের নির্দেশ ও অসৎকাজ থেকে জনগণকে বিরত রাখতে চেয়েছিলেন। পাশাপাশি এ আত্মত্যাগের মাধ্যমে তিনি বনি উমাইয়ার নেফাকের মুখোশকে উন্মুক্ত করেছেন।

বক্তারা আরও বলেন: কারবালাতে ইমাম হুসাইন (আঃ) এর এই আত্মত্যাগের কারণেই আজ সত্য ইসলাম ধর্ম আমাদের কাছে পৌঁছেছে।#


সম্পর্কিত প্রবন্ধসমূহ

আপনার মন্তব্য প্রেরণ করুন

আপনার ই-মেইল প্রকাশিত হবে না। প্রয়োজনীয় ফিল্ডসমূহ * এর মাধ্যমে চিহ্নিত করা হয়েছে

*

پیام امام خامنه ای به مسلمانان جهان به مناسبت حج 2016
We are All Zakzaky
telegram