আফগানিস্তানের জনগণ ও প্রেসিডেন্টের নিকট ক্ষমা চাইলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট

  • News Code : 298574
  • Source : Abna
মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা এক পত্র প্রেরণ পূর্বক আফগানিস্তানের জনগণ ও এদেশের সরকারের নিকট বাগরাম প্রদেশে মার্কিন ঘাঁটিতে পবিত্র কুরআনে অগ্নিসংযোগের ঘটনায় ক্ষমা চেয়েছেন।

আহলে বাইত (আ.) বার্তা সংস্থা আবনার রিপোর্ট : আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্টের (হামিদ কারযাই) কার্যালয় গতকাল -২৩শে ফেব্রুয়ারী- ঘোষণা করেছে যে, মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা এক পত্র প্রেরণ পূর্বক এদেশের বাগরাম প্রদেশের অবস্থিত মার্কিন ঘাঁটিতে পবিত্র কুরআনে অগ্নিসংযোগের ঘটনায় এদেশের প্রেসিডেন্ট ও জনগণের নিকট ক্ষমা চেয়েছেন।

ওবামা এ পত্রে পবিত্র কুরআনে অগ্নিসংযোগকে অনিচ্ছাকৃত একটি পদক্ষেপ আখ্যায়িত করে এ বিষয়ে জোর তদন্ত করার প্রতি গুরুত্বারোপ করেছেন।

আফগানিস্তানে অবস্থানরত মার্কিন রাষ্ট্রদূত ‘রায়ান ক্রোকার’ মারফত ওবামা’র ঐ পত্র কারযাইয়ের কার্যালয়ে প্রদান করা হয়। তিনি ঐ চিঠিতে লিখেছেন : আমি এ ঘটনায় অত্যন্ত প্রভাবিত হয়েছি। আমি আপনার ও আফগানিস্তানের জনগণের নিকট আন্তরিকভাবে ক্ষমা চাচ্ছি। ওটা ছিল অনিচ্ছাকৃত একটি ভুল। আমি আপনাকে প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি যে, এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করে এ ধরণের ঘটনার পথরোধ করা হবে এবং এ ঘটনার সাথে জড়িতদেরকে শাস্তি প্রদান করা হবে।

উল্লেখ্য, আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের উত্তরে অবস্থিত ‘বাগরাম’ অঞ্চলের মার্কিন ঘাঁটিতে মার্কিন সৈন্যদের কর্তৃক পবিত্র কুরআনে অগ্নিসংযোগের ধৃষ্টতাপূর্ণ ও অবমাননাকর ঘটনা এদেশের জনগণকে ক্ষুব্ধ করেছে। আফগানিস্তানের জনগণ পবিত্র কুরআনের প্রতি অবমাননার প্রতিক্রিয়া কাবুলসহ এ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে মার্কিন বিরোধী বিক্ষোভ করেছে। আর এ সকল বিক্ষোভের উপর হামলায় এ পর্যন্ত কমপক্ষে ১২ ব্যক্তি নিহত এবং উল্লেখযোগ্য সংখ্যক ব্যক্তি আহত হয়েছে।

বলাবাহুল্য, পবিত্র কুরআনের প্রতি অবমাননার ঘটনার কথা ছড়িয়ে পড়ার সাথে সাথে বিক্ষুব্ধ জনতা মার্কিন ঐ ঘাঁটিতে পেট্রোল বোমা নিক্ষেপের মাধ্যমে হামলা চালিয়েছিল।#

Download FILES


32 course of competition of Holy Quran
کنگره جریان‏های تکفیری