রোজা সংক্রান্ত মাসাআলা (১)

  • News Code : 200644
  • Source : ABNA

প্রশ্ন: সরকারী অনুষ্ঠানাদিতে, সাধারণ সভা-সমাবেশ বা অন্য কোন ইফতার পার্টিতে আহলে সুন্নাতের ইফতারের সময়সূচী অনুসরণ করা কি জায়েজ? যদি মুকাল্লাফ ব্যক্তি জানে যে একাজ তাকিয়ার অন্তর্ভুক্ত নয় আবার তা করার পিছনে কোন যুক্তি প্রমাণও নেই তাহলে করণীয় কি?

উত্তর: মুক্কাল্লাফ ব্যক্তির জন্য ইফতারের সময় শুরুর ব্যাপারে অন্যকে অনুসরণ করা জায়েজ নয় এবং স্বাধীনতা বা নিজ এক্তিয়ার থাকা অবস্থায় ইফতারী করা জায়েজ নয়। যদি না রাত হওয়া বা দিন সমাপ্ত হওয়ার বিষয়টি নিজের জ্ঞান দ্বারা বা অন্য কোন শারয়ী পন্থায় নির্দিষ্ট করে থাকে।

 

প্রশ্ন: যে মহিলা রোগের কারণে রোজা রাখতে পারে না এবং পরবর্তী রমজান পর্যন্ত তার কাযা আদায় করতেও অক্ষম থাকে তার উপর কি কাফফারা ওয়াজিব হবে? নাকি তার স্বামীর উপর ওয়াজিব হবে?

উত্তর: প্রশ্নে উল্লিখিত বক্তব্য অনুযায়ী তার উপর প্রত্যেকদিন বাবদ একমুদ খাদ্য ফিদিয়া দান করা ওয়াজিব। তার স্বামীর উপর ওয়াজিব নয়।

 

প্রশ্ন: রমজান মাসের কোন একটি দিনে আমি যখন রোজা রেখেছিলাম তখন আমার দাঁত ব্রাশ করিনি। যদিও অবশিষ্ট খাদ্যকণাকে আমি গিলে খাইনি কিন্তু সেগুলো ভিতরে চলে গেল। এমতাবস্থায় সেদিনের কাযা আদায় করা কি আমার জন্যে ওয়াজিব?

উত্তর: যদি দাঁতের ফাঁকে অবশিষ্ট খাদ্যকণা সম্পর্কে কোন খোঁজ না রেখে থাকেন এবং পেটের ভিতর চলে যাওয়াটা যদি সজ্ঞাতে ও ইচ্ছাকৃতভাবে না হয় তাহলে ঐ দিন সম্পর্কে কিছুই আপনার উপর ওয়াজিব নয়।

 

প্রশ্ন: যদি রোজাদারের মুখ থেকে রক্ত বের হয় তাহলে তার রোজা কি বাতিল হয়ে যায়?

উত্তর: এ কারণে রোজা বাতিল হবে না। তবে রক্ত যেন গলায় না পৌঁছায় সে ব্যবস্থা করা ওয়াজিব।

 

প্রশ্ন: আমার আম্মা প্রায় ১৩ বছর যাবত অসুস্থ ছিলেন। এ কারণে তিনি রোজা থেকে বঞ্চিত ছিলেন এবং আমি জানি যে, রোজার ফরজ কাজ থেকে তার এ বঞ্চিত হওয়ার কারণ ছিল তার ঔষধ সেবনের জরুরতা। অতএব, আপনার কাছে প্রার্থনা আমাদেরকে এ ব্যাপারে পথ দেখাবেন যে তার উপর কি কাযা ওয়াজিব হবে?

উত্তর: যদি অসুস্থতার কারণেই তিনি রোজা রাখতে অপারগ হন তবে তার জন্য কাযা করতে হবে না।

 

-ইসলামী বিপ্লবের মহান নেতা আয়াতুল্লাহ সাইয়্যেদ আলী খামেনেয়ী’র আজবেবাতুল ইস্তিফতাআত গ্রন্থ হতে গৃহীত হয়েছে।


پیام رهبر انقلاب به مسلمانان جهان به مناسبت حج 1440 / 2019
conference-abu-talib
We are All Zakzaky