'আগের চেয়েও জোরালো হবে আসন্ন বিশ্ব কুদস দিবস'

  • News Code : 699350
  • Source : IRIB
Brief

ফিলিস্তিনের সংগ্রামী ইসলামী প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসের মুখপাত্র সামি আবু জুহরি বলেছেন, বিগত বছরগুলোর চেয়েও বেশি মহাসমারোহে পালিত হবে এবারের বিশ্ব কুদস দিবস।

আবনা : ফিলিস্তিনের সংগ্রামী ইসলামী প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসের মুখপাত্র সামি আবু জুহরি বলেছেন, বিগত বছরগুলোর চেয়েও বেশি মহাসমারোহে  পালিত হবে এবারের বিশ্ব কুদস দিবস।
তিনি আরও বলেছেন, ইসলামের শত্রুরা মুসলিম দেশগুলোর মধ্যে গোত্রীয় ও ধর্মীয় বিভেদ সৃষ্টি করে মুসলমানদেরকে পারস্পরিক সংঘাতে জড়িয়ে ফেলেছে। ফিলিস্তিন সংকটকে ভুলিয়ে দেয়ার জন্যই এটা করা হয়েছে বলে তিনি মন্তব্য করেন।  
জুহরি এমন সময় এইসব মন্তব্য করলেন যখন মুসলমানদের প্রথম কেবলা আলআকসা মসজিদ ও পবিত্র বায়তুল মুকাদ্দাস শহরকে ইহুদিবাদী ইসরাইলের নাগপাশ থেকে মুক্ত করার জন্য সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে প্রতি বছরের মত এ বছরও বিশ্ব-কুদস দিবস পালনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন বিভিন্ন দেশের মুসলমানরা।
১৯৭৯ সালে ইরানে ইসলামী বিপ্লব সফল হওয়ার পর মরহুম ইমাম খোমেনীর ডাকে পবিত্র রমজানের শেষ শুক্রবারকে বিশ্ব কুদস দিবস হিসেবে পালন করা হয়।  সেই থেকে প্রতি বছর কুদস দিবসের শোভাযাত্রা ও সমাবেশে অংশ নিচ্ছেন বিশ্বের কোটি কোটি মানুষ।
হামাসের মুখপাত্র সামি আবু জুহরি কুদস ও ফিলিস্তিন ইস্যুর বিষয়ে মধ্যপ্রাচ্যের কোনো কোনো শাসকের উদাসীনতায় অসন্তোষ প্রকাশ করে বলেছেন, ফিলিস্তিনিরা বিশ্বের মুক্তিকামী জনগণের সমর্থন নিয়ে ফিলিস্তিনকে ইসরাইলের জবরদখল থেকে মুক্ত করার জন্য সব ধরনের প্রচেষ্টা চালিয়ে যাবে এবং ব্যাপক হারে কুদস দিবসের শোভাযাত্রায় অংশ নেবে।
ফিলিস্তিনের সংগ্রামী দল ইসলামী জিহাদের শীর্ষস্থানীয় সদস্য দাউদ শাহাবও বিশ্ব কুদস দিবস পালনের গুরুত্ব তুলে ধরে বলেছেন, বায়তুল মুকাদ্দাস ও কুদস তথা আল-আকসা মসজিদ সংলগ্ন অঞ্চল নিকৃষ্টতম ইহুদিকরণের মুখে রয়েছে। এ অঞ্চলে অবৈধ ইহুদি বসতি নির্মাণ তৎপরতা চালানোর পাশাপাশি আলআকসা মসজিদসহ বিভিন্ন পবিত্র স্থানের অবমাননা করা হচ্ছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।
শাহাব বলেছেন, এ অবস্থায় বিশ্ব কুদস দিবস পালন এই পবিত্র শহরের সঙ্গে মুসলিম ও আরব বিশ্বের সংহতি জোরদারের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।
পিএলও'র ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট শাখার সদস্য তালাল আবু জারিফাহ বিশ্ব কুদস দিবসকে ইরানের ইসলামী বিপ্লবের অন্যতম প্রধান সুফল হিসেবে অভিহিত করে বলেছেন, রমজানের শেষ শুক্রবার কুদস ও আলআকসা মসজিদে ইসরাইলের অবৈধ তৎপরতা সম্পর্কে জনগণকে সচেতন করার সুযোগ এনে দেয় এবং এই দিনে সব মুসলিম দেশকে এটা বুঝতে হবে যে ফিলিস্তিন সংকট হচ্ছে মুসলমানদের প্রধান সংকট।#


আপনার মন্তব্য প্রেরণ করুন

আপনার ই-মেইল প্রকাশিত হবে না। প্রয়োজনীয় ফিল্ডসমূহ * এর মাধ্যমে চিহ্নিত করা হয়েছে

*

پیام رهبر انقلاب به مسلمانان جهان به مناسبت حج 1441 / 2020
conference-abu-talib
We are All Zakzaky