?>

অভিমান করে কাবুল থেকে কান্দাহার চলে গেলেন মোল্লা বারাদার

অভিমান করে কাবুল থেকে কান্দাহার চলে গেলেন মোল্লা বারাদার

তালেবানের রাজনৈতিক দপ্তরের প্রধান ও নবগঠিত আফগান সরকারের উপ প্রধানমন্ত্রী মোল্লা আব্দুলগনি বারাদার তালেবান নেতৃত্বের সঙ্গে দ্বন্দ্বের জের ধরে রাজধানী কাবুল ছেড়ে কান্দাহারে চলে গেছেন।

আহলে বাইত (আ.) বার্তা সংস্থা (আবনা) : তালেবানের কোনো কোনো অসমর্থিত সূতের বরাত দিয়ে কাবুল থেকে আইআরআইবি’র সংবাদদাতা এ খবর জানিয়েছেন। সূত্রগুলো বলেছে, সিরাজুদ্দিন হক্কানির চাচা ও তালেবানের অভিবাসন বিষয়ক মন্ত্রী মোল্লা খলিলুর রহমান হক্কানি’র সঙ্গে মতবিরোধের জের ধরেই মূলত বারাদার কান্দাহার চলে গেছেন।

এসব সূত্র বলছে, খলিলুর রহমান হক্কানির সঙ্গে আব্দুলগনি বারাদারের প্রচন্ড বাকযুদ্ধ হয়েছে। তবে অন্য সূত্রগুলো বলেছে, বারাদার তালেবানের সর্বোচ্চ নেতা মোল্লা হেবাতুল্লাহ আখুনন্দজাদের সঙ্গে সাক্ষাতের উদ্দেশ্যে কান্দাহার গেছেন এবং শিগগিরই তিনি কাবুলে ফিরে আসবেন।

সম্প্রতি কাবুল সফররত কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে তালেবান সরকারের সাক্ষাতে বারাদারের অনুপস্থিতি তার সম্পর্কে নানা জল্পনা তৈরি করেছিল। কাতারে অবস্থিত তালেবানের রাজনৈতিক দপ্তরের প্রধানের দায়িত্ব পালন করছেন বারাদার। কাজেই কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতে তার অনুপস্থিত থাকার কথা ছিল না।

এ অবস্থায় এই গুজব ছড়িয়ে পড়ে যে, অন্তভ্যরীণ কোন্দলে গুলিবিদ্ধ হয়েছেন বারাদার; এমনকি কোনো কোনো গণমাধ্যম তার মৃত্যুর খবরও প্রচার করেছিল।কিন্তু কাতারে তালেবানের মুখপাত্র নায়িম ওয়ারদাক এক অডিও বার্তায় বলেছেন, বারাদার সম্পূর্ণ সুস্থ রয়েছেন এবং তার আহত হওয়ার খব সত্য নয়।#

342/


আপনার মন্তব্য প্রেরণ করুন

আপনার ই-মেইল প্রকাশিত হবে না। প্রয়োজনীয় ফিল্ডসমূহ * এর মাধ্যমে চিহ্নিত করা হয়েছে

*