?>
হজরত আবু তালিব (আ.) আন্তর্জাতিক সম্মেলন;

আহলে সুন্নতের বিশ্বাস আবু তালিব মু’মিন ছিলেন : এয-যায়তুনাহ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক

আহলে সুন্নতের বিশ্বাস আবু তালিব মু’মিন ছিলেন : এয-যায়তুনাহ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক

তিউনিশিয়ার এয-যায়তুনাহ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক বলেছেন: আমরা আহলে সুন্নাত হজরত আবু তালিবের ঈমানের বিষয়ে আকিদা পোষণ করি এবং এর সপক্ষে বিভিন্ন দলীলও রয়েছে।

হলে বাইত (আ.) বার্তা সংস্থা (আবনা): মহানবি (স.) এর সহযোগী আবু তালিব (আ.) আন্তর্জাতিক সম্মেলনে  ‘মুসলিম মনীষীদের দৃষ্টিতে আবু তালিব (আ.)’ শীর্ষক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে।

তিউনিশিয়ার এয-যায়তুনাহ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. বাদরুল মাদানি আল্লাহর রাসুল (স.) এর বিশেষ মর্যাদা ও অবস্থানের প্রতি ইঙ্গিত করে বলেন: মহানবি (স.) এর পিতা ও তাঁর আত্মীয়-স্বজন এবং নবি বংশের সদস্যরা সম্মানের পাত্র, তাদের অস্তিত্বে নূরের উপস্থিতি রয়েছে, মহানবি (স.) এর প্রতি সম্মানের কারণে তাঁর বংশধরগণও সম্মানিত, এ কারণে তাদের প্রতি সম্মান প্রদর্শন করা উচিত।

তিনি বলেন: মহান আল্লাহ্ পবিত্র কুরআনে মহানবি (স.) এর আহলে বাইত (আ.) কে পবিত্র বলে ঘোষণা দিয়েছেন। আহলে সুন্নাতের নিকট আহলে বাইত (আ.) বহু ফজিলতের অধিকারী। আমরা তাদের প্রতি মাওয়াদ্দাত পোষণ করি; আহলে সুন্নতের আকায়েদ, তাফসির ও ফেকাহ বিষয়ক গ্রন্থসমূহ এর সাক্ষী।

এয-যায়তুনাহ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকের সংযোজন: আমরা আহলে বাইত (আ.) এর ফজিলত, শ্রেষ্ঠত্ব ও মর্যাদা সম্পর্কে অবগত। মহান আল্লাহ পবিত্র কুরআনের বিভিন্ন আয়াতে আহলে বাইত (আ.) এর প্রতি ইঙ্গিত করেছেন। আল্লাহর রাসুল (স.) এর পূর্ব-পুরুষরাও মহান আল্লাহর প্রতি ঈমানদার ছিলেন। ঐশী রহমতের বাহকগণ মুশরিক ছিলেন না। আহলে বাইত (আ.) হচ্ছেন নবুয়্যতের আসমানে নক্ষত্রের ন্যায়। আমরা আহলে সুন্নত হজরত আবুতালিবের মু’মিন হওয়ার বিষয়টির প্রতি আকিদা পোষণ করি। এ বিষয়ে গোঁড়ামীর বশবর্তী হয়ে কথা বলি না বরং এর সপক্ষে বিভিন্ন দলীল রয়েছে।

ড. বাদরুল মাদানি হজরত আবু তালিবের ঈমানের প্রতি ইঙ্গিত করে বলেন: মহান আল্লাহ পবিত্র কুরআনের বিভিন্ন আয়াতে হজরত আবু তালিব কর্তৃক মহানবি (স.) কে সহযোগিতা ও পৃষ্ঠপোষকতা প্রদানের প্রতি ইঙ্গিত দিয়েছেন। এ সকল আয়াত তাঁর ঈমানেরই প্রমাণ। হজরত আবু তালিব ছিলেন হজরত আলী (কা.) এর সম্মানিত পিতা এবং ইমাম হাসান ও ইমাম হুসাইন (আ.) এর সম্মানিত পিতামহ।

তিনি বলেন: হজরত মুহাম্মাদ (স.) যখন এতিম ছিলেন তখন তার দেখাশুনার দায়ভার হজরত আবু তালিবের উপর ছিল। তিনি মহানবি (স.) এর পৃষ্ঠপোষকতা ও সহযোগিতার গৌরব অর্জন করেছিলেন।#176


সম্পর্কিত প্রবন্ধসমূহ

আপনার মন্তব্য প্রেরণ করুন

আপনার ই-মেইল প্রকাশিত হবে না। প্রয়োজনীয় ফিল্ডসমূহ * এর মাধ্যমে চিহ্নিত করা হয়েছে

*