?>

উত্তর প্রদেশে ফৈজাবাদ জংশনের নাম পরিবর্তন করে অযোধ্যা ক্যান্ট করা হয়েছে, বিজ্ঞপ্তি জারি

উত্তর প্রদেশে ফৈজাবাদ জংশনের নাম পরিবর্তন করে অযোধ্যা ক্যান্ট করা হয়েছে, বিজ্ঞপ্তি জারি

ভারতের বিজেপিশাসিত উত্তর প্রদেশের ফৈজাবাদ রেলওয়ে জংশনের নাম পরিবর্তন করে অযোধ্যা ক্যান্ট করা হয়েছে। এ সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে। আজ (মঙ্গলবার) গণমাধ্যমে প্রকাশ, পূর্ত দফতরের মুখ্য সচিব নীতিন রমেশ গোকর্ণ ওই বিজ্ঞপ্তি জারি করেছেন।

আহলে বাইত (আ.) বার্তা সংস্থা (আবনা) : ফৈজাবাদ রেলওয়ে স্টেশনটি ১৮৭৪ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল এবং বর্তমানে এটি উত্তর রেলওয়ের অধীনে রয়েছে। এটি লক্ষনৌ-বারাণসী রেল রুটে অবস্থিত। ফৈজাবাদ জংশনের নাম পরিবর্তন করে অযোধ্যা ক্যান্ট করার সিদ্ধান্ত আগেই নেওয়া হয়েছিল। এবার বিজ্ঞপ্তি জারি হল।     

গত অক্টোবরে মুখ্যমন্ত্রীর কার্যালয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে এক টুইট বার্তায় জানিয়েছিল, ‘উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শ্রী যোগী আদিত্যনাথজী ফৈজাবাদ রেলওয়ে জংশনের নাম পরিবর্তন করে 'অযোধ্যা ক্যান্ট' করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।’  

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালে  মুখ্যমন্ত্রী যোগি আদিত্যনাথের নেতৃত্বাধীন ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) সরকার ফৈজাবাদ জেলা এবং মণ্ডলের নাম পরিবর্তন করে অযোধ্যা করে। এ ছাড়াও বিজেপি সরকার ইলাহাবাদ জেলার নাম পরিবর্তন করে ‘প্রয়াগরাজ’ এবং মুঘলসরাই জংশনের (রেলওয়ে স্টেশন) নাম পরিবর্তন করে পণ্ডিত দীনদয়াল উপাধ্যায় জংশন করে দেয়।       

গত আগস্টে উত্তর প্রদেশে আলীগড়ের নাম হরিগড়, মঈনপুরী শহরের নাম মায়ান নগর ফিরোজাবাদের নাম পরিবর্তন করে চন্দ্র নগর করার প্রস্তাব পাশ হয়েছে। জেলা পঞ্চায়েতের পক্ষ থেকে এসব প্রস্তাব পাশ করা হয়। 

উত্তর প্রদেশে হিন্দুত্ববাদী বিজেপি সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকে একাধিক শহর ও জেলার নাম পরিবর্তনের অনুমতি দিয়েছে। এভাবে আরও একাধিক জেলার নাম পরিবর্তন করার প্রস্তাব রয়েছে বলে জানা গেছে। মীর্জাপুরের নাম পরিবর্তন করে বিন্ধ্য ধাম, আগ্রার নাম অগ্রবন, সুলতানপুরের নাম কুশ ভবন, আজমগড়ের নাম আর্যগড় এবং গাজীপুরের নাম পরিবর্তন করে গাধিপুরী করার দাবি উঠেছে।#   

342/


আপনার মন্তব্য প্রেরণ করুন

আপনার ই-মেইল প্রকাশিত হবে না। প্রয়োজনীয় ফিল্ডসমূহ * এর মাধ্যমে চিহ্নিত করা হয়েছে

*