?>

উত্তর প্রদেশে সন্ত্রাসী ধরপাকড় নিয়ে সন্দিহান অখিলেশ-মায়াবতী, তীব্র কটাক্ষ বিজেপি’র

উত্তর প্রদেশে সন্ত্রাসী ধরপাকড় নিয়ে সন্দিহান অখিলেশ-মায়াবতী, তীব্র কটাক্ষ বিজেপি’র

ভারতের বিজেপিশাসিত উত্তর প্রদেশে সন্ত্রাসী ধরপাকড় প্রসঙ্গে উত্তর প্রদেশের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ও সমাজবাদী পার্টির নেতা অখিলেশ যাদব ও সাবেক মুখ্যমন্ত্রী এবং বহুজন সমাজ পার্টির প্রধান মায়াবতী সংশয় প্রকাশ করেছেন।

রাজ্যের শাসকদল বিজেপি নেতারা এ ব্যাপারে অখিলেশ যাদবের তীব্র সমালোচনা ও কটাক্ষ করেছেন।

বহুজন সমাজ পার্টির প্রধান মায়াবতী বলেছেন, ‘সন্ত্রাসবাদী ধরা পড়ার বিষয়টি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। ভয়ঙ্কর ঘটনা! কিন্তু তার সময় নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে। নির্বাচন এলেই কেন এই অভিযান শুরু হয়?’  

উত্তর প্রদেশ পুলিশের বিশেষ সন্ত্রাস দমন শাখা গত (রোববার) অভিযানে নেমে লক্ষনৌ থেকে দু’জনকে গ্রেফতার করে জানিয়েছে, এরা আল কায়দার সমর্থক আনসার গাজওয়াতুল হিন্দ সংগঠনের সদস্য,  ১৫ আগস্টের আগে  ট্রেন বা বাজারে বিস্ফোরণের ষড়যন্ত্র করছিল। এদের কাছ থেকে  বিস্ফোরক তৈরির কিছু সরঞ্জামও পাওয়া গেছে। পুলিশ জানিয়েছে,  ওই ঘটনার পরে উত্তর প্রদেশের সব বড় শহরে সতর্কতা জারি হয়েছে। সাধারণ মানুষকেও সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে।

সন্ত্রাসী গ্রেফতার প্রসঙ্গে রাজ্যের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ও সমাজবাদী পার্টির নেতা অখিলেশ যাদব বলেন, ‘উত্তরপ্রদেশ পুলিশ বিশেষ করে বিজেপি সরকারের প্রতি আমার আস্থা নেই।’    তাঁর এ ধরণের মন্তব্যের পরেই মাঠে নেমে পাল্টা আক্রমণ শুরু করেছে বিজেপি।

বিজেপি নেতা সি টি রবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটার বার্তায় বলেন,  ‘উত্তরপ্রদেশের সাবেক মুখ্যমন্ত্রীরই নিজের রাজ্যের পুলিশ ও বিজেপি সরকারের উপরে আস্থা নেই, এটা রীতিমতো শকিং! এই বংশেরই সদস্যই তো একসময়ে দাবি করেছিল, বিজেপি সরকারের কোভিড টিকায় ভরসা নেই। তাহলে কার প্রতি ভরসা রয়েছে তাঁর? পাকিস্তান সরকার ও তার জঙ্গিদের উপর?’  

বিজেপি’র আরেক নেতা অমিত মালব্য বলেছেন,  ‘অখিলেশ প্রথমে টিকা নিয়ে  সন্দেহ প্রকাশ করেছেন। তারপর এখন বলছেন,  সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে উত্তর প্রদেশ পুলিশের তৎপরতায় তার আস্থা নেই। রাজ্য সরকার বা প্রশাসনের উপর যদি তার আস্থাই না থাকে,  তাহলে (উত্তর প্রদেশের) মুখ্যমন্ত্রী হতে চান কেন?  ঘরে বসে থাকুন না!’

সব মিলিয়ে রাজ্যে আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনের মুখে সন্ত্রাসী গ্রেফতারকে কেন্দ্র করে রাজনৈতিক মহলে বিতর্ক ও পাল্টাপাল্টি মন্তব্য শুরু হয়েছে।#

342/


আপনার মন্তব্য প্রেরণ করুন

আপনার ই-মেইল প্রকাশিত হবে না। প্রয়োজনীয় ফিল্ডসমূহ * এর মাধ্যমে চিহ্নিত করা হয়েছে

*