?>

তাজিকিস্তান ও উজবেকিস্তানকে যে কারণে কঠোর হুঁশিয়ারি দিল তালেবান

তাজিকিস্তান ও উজবেকিস্তানকে যে কারণে কঠোর হুঁশিয়ারি দিল তালেবান

আফগানিস্তানের হেলিকপ্টারগুলো দেশটিকে ফেরত দেয়ার জন্য তাজিকিস্তান ও উজবেকিস্তানের প্রতি কঠোর হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছে অন্তর্বর্তী তালেবান সরকার। ইরানের বার্তা সংস্থা ফার্স জানিয়েছে, আফগানিস্তানের অন্তর্বর্তী তালেবান সরকারের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ও সাবেক তালেবান নেতা মোল্লা উমরের ছেলে মোল্লা ইয়াকুব এই হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন।

আহলে বাইত (আ.) বার্তা সংস্থা (আবনা) : তিনি মঙ্গলবার কাবুলে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেছেন, “তালেবানের সহ্যের সীমা শেষ হয়ে এসেছে।আমাদেরকে প্রতিক্রিয়া দেখাতে বাধ্য করা উজবেকিস্তান ও তাজিকিস্তানের উচিত হবে না।”

তালেবান সরকার বলেছে, আফগানিস্তানে বর্তমানে ২০০টির বেশি হেলিকপ্টার রয়েছে যেগুলোর মধ্যে ৫০টিকে তারা সচল করে উড্ডয়নের উপযোগী করতে পেরেছেন। কাবুল সম্প্রতি আরো বলেছিল, গত বছরের আগস্ট মাসে সাবেক আশরাফ গনি সরকারের পতনের সময় অন্তত ৪০টি হেলিকপ্টার প্রতিবেশী দেশ উজবেকিস্তান ও তাজিকিস্তানে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।  

প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি ২০২০ সালের ১৫ আগস্ট দেশ ছেড়ে পালিয়ে যান এবং তার পালিয়ে যাওয়ার খবর প্রকাশিত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে কাবুল অবরোধ করে রাখা তালেবান সদস্যরা রাজধানীতে প্রবেশ করেন এবং কাবুল দখল করে নেন। প্রেসিডেন্ট গনি পালিয়ে যাওয়ার সময় চার হেলিকপ্টার ভর্তি বৈদেশিক মুদ্রা নিয়ে গেছেন বলে সে সময় গুজব ছড়িয়ে পড়ে।

পরবর্তীতে অবশ্য গনি এই অভিযোগ অস্বীকার করেন। কিছুদিন আগে তালেবান সরকার ঘোষণা করেছিল, গনি সরকারের পতনের সময় তার প্রশাসনের বহু পদস্থ কর্মকর্তা হেলিকপ্টারে করে প্রতিবেশী দেশগুলোতে পালিয়ে গেছেন।#



342/


আপনার মন্তব্য প্রেরণ করুন

আপনার ই-মেইল প্রকাশিত হবে না। প্রয়োজনীয় ফিল্ডসমূহ * এর মাধ্যমে চিহ্নিত করা হয়েছে

*