রোহিঙ্গা নিধনে আগেই প্রস্তুত ছিল মিয়ানমার!

রোহিঙ্গা নিধনে আগেই প্রস্তুত ছিল মিয়ানমার!

বৃহস্পতিবার ব্যাংককভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থা ফর্টিফাই রাইটসের প্রতিবেদনের বরাদ দিয়ে এ খবর প্রকাশ করেছে টাইম অনলাইন।

আবনা ডেস্কঃ মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্য থেকে রোহিঙ্গাদের চিরতরে বিদায় করতে আগে থেকেই প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছিল মিয়ানমারের সেনাবাহিনী। ব্যাংককভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থা ফর্টিফাই রাইটসের এক প্রতিবেদনে এ কথা বলা হয়েছে।
বৃহস্পতিবার সংস্থাটি তাদের প্রতিবেদন প্রকাশ করার পর ওই প্রতিবেদনের বরাদ দিয়ে এ খবর প্রকাশ করেছে টাইম অনলাইন।
মানবাধিকারবিষয়ক ওই সংস্থাটি জাতিসংঘের নিরাপত্তা কাউন্সিলকে অপরাধ তদন্তের জন্য আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে (আইসিসি) পরিস্থিতি তুলে ধরতে বলেছে।
প্রতিবেদনে বলেছে, মিয়ানমারের রোহিঙ্গাদের ওপর গণহত্যা ও যুদ্ধাপরাধ করা হয়েছে, তা বিশ্বাস করার যথার্থ কারণ আছে। মিয়ানমারের সেনাবাহিনী ও পুলিশ কর্মকর্তাদের কমান্ডের চেইন অব কমান্ড এর সঙ্গে যুক্ত।
সংস্থার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ম্যাথু স্মিথ বলেছেন, মিয়ানমারের গণহত্যার দায়মুক্তি দিলে ভবিষ্যতে এমন ঘটনা বেশি ঘটবে এবং বেশি আক্রমণ ও মানবাধিকার লঙ্ঘনের পথ সৃষ্টি হবে। মিয়ানমারের ঘটনায় পুরো বিশ্ব অলস বসে থেকে আরেকটি গণহত্যার ঘটনার দৃশ্য দেখার জন্য অপেক্ষা করতে পারে না।
উল্লেখ্য, গত বছরের ২৫ আগস্ট মিয়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনীর ওপর হামলার অভিযোগের দেশটির সেনাবাহিনী রোহিঙ্গাদের ওপর হামলা, খুন ও ধর্ষণ শুরু করে। তাদের অত্যাচারে প্রায় ১০ লাখ রোহিঙ্গা পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে।


আপনার মন্তব্য প্রেরণ করুন

আপনার ই-মেইল প্রকাশিত হবে না। প্রয়োজনীয় ফিল্ডসমূহ * এর মাধ্যমে চিহ্নিত করা হয়েছে

*

conference-abu-talib
We are All Zakzaky