?>

ফাইজার ভ্যাকসিন গ্রহণের পর নরওয়ের ২৩ নাগরিকের মৃত্যু, মুখ বন্ধ ব্রিটিশ-মার্কিন গণমাধ্যমের

ফাইজার ভ্যাকসিন গ্রহণের পর নরওয়ের ২৩ নাগরিকের মৃত্যু, মুখ বন্ধ ব্রিটিশ-মার্কিন গণমাধ্যমের

বহুল আলোচিত ফাইজার-বায়োনটেক কোম্পানি উদ্ভাবি করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন গ্রহণের নরওয়ের ২৩ জন নাগরিকের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। তবে এ ঘটনা নিয়ে একেবারে চুপ রয়েছে ব্রিটেন এবং আমেরিকার প্রধান গণমাধ্যমগুলো।

আহলে বাইত (আ.) বার্তা সংস্থা (আবনা): পরিস্থিতি দেখে মনে হচ্ছে আমেরিকার ফাইজার এবং জার্মানির বায়োনটেক কোম্পানি উদ্ভাবিত এই টিকার ক্ষতিকর দিক নিয়ে কথা না বলার সমঝোতায় পৌঁছেছে ব্রিটিশ এবং মার্কিন গণমাধ্যম।

ফাইজার-বায়োনটেক কোম্পানির টিকা গ্রহণের পর যে ২৩ জন নরওয়ের নাগরিক মারা গেছে তাদের ১৩ জনের বয়স ৮০ বছরের বেশি। টিকা গ্রহণের পর তাদের জ্বর-সহ আরো বেশ কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দেয়। নরওয়ের মেডিসিন এজেন্সি বলেছে, ধারণা করা হচ্ছে ফাইজার-বায়োনটেক কোম্পানির এই টিকা বয়স্ক মানুষের জন্য মারাত্মক রকমের প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করতে পারে।

এজেন্সির মেডিক্যাল ডিরেক্টর স্ট্রেইনার ম্যাডসেন সাংবাদিকদের বলেছেন, এই ঘটনার পর এখন ডাক্তারদের বিবেচনায় নিতে হবে যে, কাকে টিকা দেয়া হবে আর কাকে দেয়া হবে না।

নরওয়ের ইনস্টিটিউট ফর পাবলিক হেলথ বলছে, এই টিকা গ্রহণের পর ২৩ জনের মৃত্যুর ঘটনার মধ্যদিয়ে এই ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে যে, ফাইজার-বায়োনটেক কোম্পানির ভ্যাকসিন গ্রহণের পর সামান্য পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াও মারাত্মক পরিণতি বয়ে আনতে পারে।#

342/


আপনার মন্তব্য প্রেরণ করুন

আপনার ই-মেইল প্রকাশিত হবে না। প্রয়োজনীয় ফিল্ডসমূহ * এর মাধ্যমে চিহ্নিত করা হয়েছে

*

پیام رهبر انقلاب به مسلمانان جهان به مناسبت حج 1441 / 2020
conference-abu-talib
We are All Zakzaky