?>

বিশ্বের যে কোন সংকট নিরসনে ব্যর্থ জাতিসংঘ : সানআ

বিশ্বের যে কোন সংকট নিরসনে ব্যর্থ জাতিসংঘ : সানআ

ইয়েমেনের ন্যাশন্যাল স্যালভেশন সরকারের উপপ্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ইয়েমেন সংকট নিরসনের লক্ষ্যে প্রেরিত জাতিসংঘের সাবেক প্রতিনিধি সংকট নিরসনে ব্যর্থ হয়েছেন। বাস্তবিক অর্থে বিশ্বে কোন সংকট নিরসনেই সফল হয়নি জাতিসংঘ।

হলে বাইত (আ.) বার্তা সংস্থা (আবনা): ইয়েমেনে প্রেরিত জাতিসংঘের বিশেষ প্রতিনিধি ইয়েমেন সংকট নিরসনে ব্যর্থ হয়েছেন। ইয়েমেনের উপ-প্রধানমন্ত্রী এবং দেশটির জাতীয় আলোচনা কমিটির উপ-প্রধান জালাল আল-রাভিশান আল-মাসিরাহ চ্যানেলকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে বলেছেন: জাতিসংঘ (আমাদের) প্রতিপক্ষকে (সৌদি জোট ও তাদের ভাড়াটেরা) আলোচনার টেবিলে বসাতেও ব্যর্থ হয়েছে এবং সৌদি জোট সকল আলোচনাকেই প্রত্যাখ্যান করেছে।

তিনি বলেন: এ কথা বলা সম্ভব নয় যে, ইয়েমেনে মানবিক সংকট নিরসনে জাতিসংঘের বিশেষ দূত মার্টিন গ্রিফিত্স সংকট নিরসনে সফলতা পেয়েছেন। অবশ্য জাতিসংঘ এবং এ সংস্থার নিরাপত্তা পরিষদ বিশ্বের কোন টানাপোড়ন ও সংকট নিরসনে সফল হয়নি।

ইয়েমেনি এ কর্মকর্তা বলেন: সানআ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর বর্তমানে জাতিসংঘ ও আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর অফিসে পরিণত হয়েছে এবং কোন ইয়েমেনিকে তা ব্যবহারের অনুমতি দেয়া হচ্ছে না।

ইয়েমেনের উপ-প্রধানমন্ত্রী স্বাধীন ও ন্যায়ের ভিত্তিতে পদক্ষেপ গ্রহণ এবং পক্ষপাতিত্বমূল কূটনীতি পরিহারের লক্ষ্যে ইয়েমেনের বিষয়ে নিযুক্ত জাতিসংঘের নতুন প্রতিনিধির প্রতি আহবান জানান। সম্প্রতি সুইডিশ এক কূটনীতিবিদ ইয়েমেনের বিষয়ে জাতিসংঘের প্রতিনিধি হিসেবে দায়িত্বপ্রাপ্ত হয়েছেন।

ইয়েমেনের ন্যাশন্যাল স্যালভেশন সরকার এবং দেশটির পদত্যাগকৃত সরকার ৪ বছর আগে দেশটির পশ্চিমাঞ্চলীয় আল-হাদিদাহ অঞ্চলে যুদ্ধবিরতির বিষয়ে সম্মতিতে পৌঁছায়, লক্ষ লক্ষ ইয়েমেনির জন্য মানবিক ত্রাণ পৌঁছুনোর ক্ষেত্র প্রস্তুতের লক্ষ্যে এ চুক্তিতে সম্মত হয় উভয়পক্ষ। জাতিসংঘের তত্ত্বাবধানে ঐ চুক্তি সুইডেনে স্বাক্ষরিত হওয়ার কারণে চুক্তিটি ‘সুইডেন শান্তি চুক্তি’ নামে প্রসিদ্ধি লাভ করে। কিন্তু চুক্তির পর থেকে মানসুর হাদির সরকার ঐ চুক্তির কোন একটি ধারাকেও মানেনি এবং আল-হাদিদাহ অঞ্চলের বাসিন্দারা প্রতিনিয়তই সৌদি ভাড়াটেদের হামলার শিকার হচ্ছে।

ইয়েমেন বিপ্লবের উচ্চতর পরিষদের প্রধান ‘মুহাম্মাদ আলী আল-হুথি’ জাতিসংঘ কর্তৃক নতুন প্রতিনিধি নিয়োগের প্রতিক্রিয়ায় করা এক টুইটে লিখেছেন: জাতিসংঘ এবং এর নিরাপত্তা পরিষদের উচিত মার্কিন-ব্রিটিশ-সৌদি জোট এবং এদের মিত্রদের প্রতি সমর্থনের নীতি ত্যাগ করে প্রকৃত সন্ধিনীতি অবলম্বন করা। যতদিন আগ্রাসী জোটের প্রতি সমর্থন এবং অবরোধ অব্যাহত থাকবে ততদিন কোন প্রতিনিধিই নতুন কোন ফল অর্জন করতে সক্ষম হবে না।(ফার্সনিউজ)#176


সম্পর্কিত প্রবন্ধসমূহ

আপনার মন্তব্য প্রেরণ করুন

আপনার ই-মেইল প্রকাশিত হবে না। প্রয়োজনীয় ফিল্ডসমূহ * এর মাধ্যমে চিহ্নিত করা হয়েছে

*