?>

বুরকিনা ফাসোতে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলা; নিহত ৫০ থেকে ১৬৫

বুরকিনা ফাসোতে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলা; নিহত ৫০ থেকে ১৬৫

পশ্চিম আফ্রিকার দেশ বুরকিনা ফাসোর উত্তরাঞ্চলের একটি গ্রামে সন্ত্রাসীদের হামলায় কমপক্ষে ৫০ জন নিহত হয়েছে। তবে কোনো কোনো সূত্রে মৃতের সংখ্যা ১৬৫ বলে জানানো হয়েছে।

আহলে বাইত (আ.) বার্তা সংস্থা (আবনা): গতকাল (সোমবার) বুরকিনা ফাসোর নিরাপত্তা বাহিনীর এক কর্মকর্তা রয়টার্সকে বলেন, সন্ত্রাসী হামলায় কমপক্ষে ১০০ মানুষ নিহত হয়েছে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে একটি সূত্র রয়টার্সকে বলেছে, এ ঘটনায় ১৬৫ জনের মতো প্রাণ হারিয়েছে।

বুরকিনা ফাসোর সেনো প্রদেশে সেতেঙ্গা জনগোষ্ঠীর ওপর গত শনি ও রোববার রাতে সশস্ত্র হামলা হয়। সেনো প্রদেশটি বুরকিনা ফাসোর সীমান্তবর্তী এলাকা। উগ্রবাদী আল-কায়েদা এবং দায়েশ সন্ত্রাসীরা সেখানে বেশ তৎপর ব জানা যায়।

গতকাল বুরকিনা ফাসো সরকারের মুখপাত্র লিওনেল বিলগো বলেন, সেনাবাহিনী এখন পর্যন্ত ৫০ জনের মরদেহ উদ্ধার করেছে। মৃতের সংখ্যা বাড়তে পারে বলে তিনি জানান।

জাতিসংঘ এ হামলার নিন্দা জানিয়েছে। দোষী ব্যক্তিদের বিচারের আওতায় আনতে কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে তারা। ইউরোপীয় ইউনিয়নও হামলার নিন্দা জানিয়েছে।

গত সপ্তাহে সেতেঙ্গা প্রদেশে সরকারি বাহিনী ও বিদ্রোহীদের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ হয়েছে। বৃহস্পতিবার ১১ পুলিশ সদস্য নিহত হওয়ার পর সেনাবাহিনী সশস্ত্র বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে অভিযান চালায়। সেনাবাহিনী দাবি করেছে, ওই অভিযানে ৪০ জন বিদ্রোহী নিহত হয়েছে।

সরকারের মুখপাত্র বিলগো বলেন, সেনাবাহিনীর কর্মকাণ্ডের প্রতিশোধ হিসেবে এ রক্তপাত ঘটানো হয়েছে। তবে সেনাবাহিনী তাদের কাজ চালিয়ে যাচ্ছে।

সশস্ত্র গোষ্ঠীকে মোকাবিলা করতে ব্যর্থ হওয়ায় ক্ষুব্ধ হয়ে গত জানুয়ারি মাসে নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট রোক মার্ক ক্রিস্টিয়ান কাবোরেকে উৎখাত করে সেনাবাহিনী। বর্তমানে দেশটিকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন লেফটেন্যান্ট কর্নেল পল হেনরি সান্দাওগো দামিবা। তবে নিরাপত্তা পারিস্থিতির বিশেষ কোনো উন্নতি হয় নি।#

342/


আপনার মন্তব্য প্রেরণ করুন

আপনার ই-মেইল প্রকাশিত হবে না। প্রয়োজনীয় ফিল্ডসমূহ * এর মাধ্যমে চিহ্নিত করা হয়েছে

*