নেতানিয়াহুর দুর্নীতির প্রমাণ পেয়েছে পুলিশ

নেতানিয়াহুর দুর্নীতির প্রমাণ পেয়েছে পুলিশ

ঘুষ গ্রহণ সংক্রান্ত এক দুর্নীতি মামলায় পুলিশি তদন্তে ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুর দুর্নীতির প্রমাণ মিলেছে।

আবনা ডেস্ক: ঘুষ গ্রহণ সংক্রান্ত এক দুর্নীতি মামলায় পুলিশি তদন্তে ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুর দুর্নীতির প্রমাণ মিলেছে। দেশটির সংবাদ মাধ্যম চ্যানেল-২ টিভি এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে।
প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে বর্তমানে বেশ কয়েকটি দুর্নীতি মামলায় তদন্ত চলছে। তবে কেস ১০০০ নামের এ দুর্নীতি মামলাকে চলমান অন্য মামলাগুলো থেকে আলাদা করে দেখা হচ্ছে। এ মামলায় নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে অবৈধভাবে উপহার নেয়ার অভিযোগ আনা হয়েছে।
টিভি চ্যানেলটি জানায়, কেস ১০০০ দুর্নীতি মামলায় আগামী ছয় সপ্তাহের মধ্যে প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহুকে দোষী সাব্যস্ত করা হবে। তদন্তের অংশ হিসেবে পুলিশের অধীনে নেতানিয়াহুকে তিনবার জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। চলমান এ মামলায় তাকে আরও একবার জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।
ইসরাইলি এ নেতার বিরুদ্ধে ফ্রান্সের একজন ধনী ব্যবসায়ী আর্নড মিমরানের কাছ থেকে ১০ লাখ ডলারের উপহার গ্রহণের অভিযোগ আনা হয়। বড় ধরনের কার্বন ট্যাক্স ফাঁকি দেয়ার অপরাধে মিমরান এখন জেল খাটছেন।
তার বিচারের সময় মিমরান দাবি করেন, ২০০৯ সালের নির্বাচনে তিনি প্রধানমন্ত্রীকে ওই অর্থ প্রদান করেন। অবশ্য নেতানিয়াহু কোনো অন্যায় করেননি বলে এসব অভিযোগ অস্বীকার করে আসছেন। প্রধানমন্ত্রীর এক মুখপাত্র হারেৎজ পত্রিকাকে বলেন, প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ সব বাজে কথা।
পুলিশি তদন্তের ব্যাপারে বিস্তারিত কোনো তথ্য এখনও পাওয়া যায়নি। গত বছরের জুনে ইসরাইলি পুলিশ প্রধান রনি আলশেইখ দাবি করেন, প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে গোপন তদন্ত পরিচালনা করা হচ্ছে।
নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে এসব তথ্য এমন সময় সামনে এলো যখন তিনি তার দেশের সবচেয়ে ঘনিষ্ঠ মিত্র যুক্তরাষ্ট্রের কর্ণধার পদে ইসরাইলপন্থীকে পেয়েছেন। প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সঙ্গে তার বৈরী সম্পর্ক ছিল। তবে ট্রাম্প নেতানিয়াহুর প্রতি অকুণ্ঠ সমর্থন জানিয়েছেন।


আপনার মন্তব্য প্রেরণ করুন

আপনার ই-মেইল প্রকাশিত হবে না। প্রয়োজনীয় ফিল্ডসমূহ * এর মাধ্যমে চিহ্নিত করা হয়েছে

*

پیام رهبر انقلاب به مسلمانان جهان به مناسبت حج 1441 / 2020
conference-abu-talib
We are All Zakzaky