?>

মোল্লা বারাদারের সঙ্গে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূতের সাক্ষাৎ

মোল্লা বারাদারের সঙ্গে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূতের সাক্ষাৎ

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ প্রতিনিধি সাইমন গ্যাস কাবুল সফরে গিয়ে তালেবান নেতা ও আফগান উপ প্রধানমন্ত্রী মোল্লা আব্দুলগনি বারাদারের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন। মঙ্গলবারের ওই সাক্ষাতে আফগানিস্তানে নিযুক্ত কাতার-ভিত্তিক ব্রিটিশ চার্জ দ্যা অ্যাফেয়ার্স মার্টিন ল্যাংডেন উপস্থিত ছিলেন।

সাইমন গ্যাস একইসঙ্গে অন্তর্বর্তী তালেবান সরকারের অপর উপ প্রধানমন্ত্রী আব্দুস সালাম হানাফি ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী আমির খান মুত্তাকির সঙ্গেও সাক্ষাৎ করেন। এসব সাক্ষাতে আফগানিস্তানকে মানবিক সাহায্য প্রদান, দেশটিকে সন্ত্রাসীদের অভয়াশ্রম হতে না দেয়া এবং দেশত্যাগে ইচ্ছুক আফগান নাগরিকদের নিরাপদে আফগানিস্তান ত্যাগ করার ব্যবস্থা করা নিয়ে আলোচনা হয়েছে বলে ব্রিটিশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে।

তালেবান কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে ব্রিটিশ বিশেষ প্রতিনিধি আফগানিস্তানের সংখ্যালঘু জনগোষ্ঠীর পাশাপাশি নারী অধিকার প্রসঙ্গও উত্থাপন করেন।

গত ১৫ আগস্ট তালেবান আফগানিস্তানের নিয়ন্ত্রণ গ্রহণ করার পর এই প্রথম কোনো পদস্থ ব্রিটিশ প্রতিনিধিদল কাবুল সফর করল।

তালেবান সরকারের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আব্দুল কাহার বালখি এক টুইটার বার্তায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী মুত্তাকির সঙ্গে সাইমন গ্যাসের সাক্ষাতের ছবি প্রকাশ করে লিখেছেন, এ সাক্ষাতে মূলত দু’দেশের মধ্যে কূটনৈতিক সম্পর্ক পুনঃস্থাপনের বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। তবে ব্রিটিশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় দাবি করেছে, তারা তালেবানের সঙ্গে ‘একটি কূটনৈতিক চ্যানেল’ স্থাপন করতে চায়; পূর্ণাঙ্গ কূটনৈতিক সম্পর্ক নয়। এখনই ব্রিটেন তালেবান সরকারকে স্বীকৃতি দেবে না বলেও ওই মন্ত্রণালয় জানিয়েছে।

২০০১ সালের শেষদিকে আফগানিস্তানের তালেবান সরকার উৎখাতের লক্ষ্যে আমেরিকার সঙ্গে ব্রিটেনও দেশটিতে হামলা চালিয়েছিল। সেই আগ্রাসনের ২০ বছর পর গত আগস্ট মাসে তালেবানের হাতেই আফগানিস্তানের ক্ষমতা হস্তান্তর করে অত্যন্ত অপমানজনকভাবে কাবুল ত্যাগ করেছে মার্কিন ও ব্রিটিশ সেনারা।#

342/


আপনার মন্তব্য প্রেরণ করুন

আপনার ই-মেইল প্রকাশিত হবে না। প্রয়োজনীয় ফিল্ডসমূহ * এর মাধ্যমে চিহ্নিত করা হয়েছে

*