?>

'সন্ত্রাসী আখ্যা'কে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার, লক্ষ্য ফিলিস্তিনিদের প্রতি সমর্থন বন্ধ

'সন্ত্রাসী আখ্যা'কে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার, লক্ষ্য ফিলিস্তিনিদের প্রতি সমর্থন বন্ধ

ফিলিস্তিনের নিপীড়িত জনগণের প্রতি সমর্থন বন্ধ করার লক্ষ্য নিয়ে পশ্চিমা দেশগুলো 'সন্ত্রাসী আখ্যা'কে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে। এই নীতির প্রাথমিক লক্ষ্য হচ্ছে পশ্চিমা সুশীল সমাজের লোকজন।

আহলে বাইত (আ.) বার্তা সংস্থা (আবনা) : ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাঈদ খাতিবজাদে গতকাল (সোমবার) সন্ধ্যায় সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম টুইটারে দেয়া পোস্টে একথা বলেছেন। তিনি বলেন, পশ্চিমারা তাদের লক্ষ্য অর্জনের জন্য ফিলিস্তিনিদের প্রতি সমর্থন দেয়াকে অপরাধ হিসেবে তুলে ধরছে। তিনি বলেন, যে সমস্ত সংগঠন ইসরাইলি বর্ণবাদের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে পশ্চিমা এই নীতির মূল লক্ষ্য তারা নয়, বরং এর মূল লক্ষ্যবস্তু হচ্ছে পশ্চিমা সুশীল সমাজ।

ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকার প্রতিরোধকামী সংগঠন হামাসকে সমর্থন করা আইনগত অপরাধ বলে ব্রিটিশ সরকার সম্প্রতি সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেছে। এর সমালোচনা এবং নিন্দা জানিয়ে ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির আব্দুল্লাহিয়ান সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ইনস্টাগ্রামে পোস্ট দিয়েছিলেন। তার সেই পোস্ট ইনস্টাগ্রাম কর্তৃপক্ষ মুছে ফেলেছে। এরপর পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাঈদ খাতিবজাদে এইসব কথা বললেন।

আমির আব্দুল্লাহিয়ান তার পোস্টে বলেছিলেন, ফিলিস্তিন সমস্যার একমাত্র সমাধান হচ্ছে সেখানকার প্রকৃত অধিবাসী মুসলমান, খ্রিস্টান এবং ইহুদীদের মধ্যে গণভোট অনুষ্ঠান করা এবং তার ফলাফলের ভিত্তিতে ফিলিস্তিন সংকটের সমাধান করা।#

342/


আপনার মন্তব্য প্রেরণ করুন

আপনার ই-মেইল প্রকাশিত হবে না। প্রয়োজনীয় ফিল্ডসমূহ * এর মাধ্যমে চিহ্নিত করা হয়েছে

*