?>

‘অস্ত্র না থাকলে আমরা শাবল দিয়ে রাশিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধ করব’

‘অস্ত্র না থাকলে আমরা শাবল দিয়ে রাশিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধ করব’

ইউক্রেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী দিমিত্র কুলেবা বলেছেন, তার দেশের সেনাদের কাছে যদি কোনো অস্ত্র না থাকে তাহলেও কিয়েভ সরকার রাশিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধ অব্যাহত রাখবে। ফলে পশ্চিমা দেশগুলোকে ইউক্রেনে অস্ত্র পাঠানোর ক্ষেত্রে গতি বাড়াতে হবে। অন্যথায় ইউক্রেনের সেনাদের নিহত হওয়ার জন্য তাদেরকে দায় নিতে হবে।

আহলে বাইত (আ.) বার্তা সংস্থা (আবনা): গতকাল (রোববার) জার্মান গণমাধ্যম এআরডি’র এক টকশো অনুষ্ঠানে কুলেবা এসব কথা বলেছেন। তিনি বলেন, “যদি আমরা অস্ত্র না পাই, ভালো কথা- আমরা তখন শাবল দিয়ে যুদ্ধ যুদ্ধ করব। কিন্তু আমরা আমাদেরকে রক্ষা করেই যাব কারণ এটি আমাদের অস্তিত্বের লড়াই।”

পশ্চিমা দেশগুলোকে উদ্দেশ করে কুলেবা বলেন, “যত তাড়াতাড়ি তারা অস্ত্র পাঠাবে তত তাড়াতাড়ি আমরা তা পাব এবং এটি আমাদের জন্য ভালো। যদি তারা অস্ত্র পাঠাতে দেরি করে তখনো আমরা তাদের প্রতি কৃতজ্ঞ থাকব তবে তাতে অনেক বেশি ক্ষতি হয়ে যাবে এবং অনেক মানুষ মারা যাবে।”

টকশোতে আরো উপস্থিত ছিলেন ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্ট উরসুলা ভন ডার লিয়েন এবং জার্মানির কয়েকজন রাজনীতিবিদ ও রাজনৈতিক বিশ্লেষক। কুলেবা জানান, ইউক্রেনের দোনবাস এলাকায় সম্প্রতি রাশিয়ার সঙ্গে যে যুদ্ধ চলেছে তাতে মস্কোর আধুনিক অস্ত্রের মুখে ইউক্রেনের সেনারা টিকতে পারে নি। তিনি আরো বলেন, যেসব পশ্চিমা নেতা রাশিয়ার সঙ্গে শান্তি চুক্তির মাধ্যমে সংঘাতের অবসান ঘটানোর কথা বলেন তারা ভুল বলছেন।#

342/


আপনার মন্তব্য প্রেরণ করুন

আপনার ই-মেইল প্রকাশিত হবে না। প্রয়োজনীয় ফিল্ডসমূহ * এর মাধ্যমে চিহ্নিত করা হয়েছে

*