?>

‘ফিলিস্তিনিদের অধিকার লঙ্ঘন ও ইসরাইলকে পৃষ্ঠপোষকতা দিয়েছে লন্ডন’

‘ফিলিস্তিনিদের অধিকার লঙ্ঘন ও ইসরাইলকে পৃষ্ঠপোষকতা দিয়েছে লন্ডন’

ফিলিস্তিনের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন- হামাসের পলিটব্যুরো প্রধান ইসমাইল হানিয়া তার সংগঠনকে ‘সন্ত্রাসী’ আখ্যা দেয়ায় ব্রিটিশ সরকারের তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, দখলদার ইহুদিবাদী ইসরাইলকে পৃষ্ঠপোষকতা দেয়ার লক্ষ্যে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে লন্ডন সরকার।

আহলে বাইত (আ.) বার্তা সংস্থা (আবনা) : ব্রিটিশ সরকার সম্প্রতি ফিলিস্তিনের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন- হামাসকে ‘সন্ত্রাসী গোষ্ঠী’ বলে ঘোষণা করেছে। ব্রিটিশ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী প্রিতি প্যাটেল শুক্রবার লন্ডনে এই ঘোষণা দিয়ে বলেছেন, তার নির্দেশে ব্রিটেনে হামাসের যেকোনো ধরনের তৎপরতা নিষিদ্ধ করা হয়েছে। প্রিতি প্যাটেলের এ ঘোষণাকে স্বাগত জানিয়েছেন ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী লিজ ট্রাস।

এর প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে হামাস নেতা হানিয়া শনিবার গাজা উপত্যকায় বলেন, ব্রিটিশ সরকারের এ সিদ্ধান্ত ফিলিস্তিনি জাতির অধিকার লঙ্ঘন এবং দখলদার ইসরাইলকে পৃষ্ঠপোষকতা দেয়ার নামান্তর।

তিনি আরো বলেন, লন্ডনের এ সিদ্ধান্ত প্রতিহত করার লক্ষ্যে আমরা ব্যাপক প্রচেষ্টা শুরু করেছি যাতে ইহুদিবাদী ইসরাইল ব্রিটিশ সরকারের এ সিদ্ধান্তের অপব্যবহার করতে না পারে।

এর আগে ফিলিস্তিনের বিভিন্ন সংগঠন হামাসকে সন্ত্রাসী ঘোষণা করার বিরুদ্ধে প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছে। এসব সংগঠন বলেছে, লন্ডনের এ সিদ্ধান্ত ইহুদিবাদী ইসরাইলকে ফিলিস্তিনি জনগণের ওপর আরো বেশি দমন অভিযান চালাতে উৎসাহিত করবে।

ব্রিটিশ সরকার ২০০১ সালে হামাসের সামরিক শাখাকে সন্ত্রাসী ঘোষণা করেছিল। কিন্তু এবার ব্রিটেন হামাসের রাজনৈতিক শাখাকেও সন্ত্রাসী বলে আখ্যায়িত করল।#.

342/


আপনার মন্তব্য প্রেরণ করুন

আপনার ই-মেইল প্রকাশিত হবে না। প্রয়োজনীয় ফিল্ডসমূহ * এর মাধ্যমে চিহ্নিত করা হয়েছে

*