শিয়াদের উপর আরোপিত বিষয়াদির প্রতিক্রিয়ায়;

আল-আযহারের গ্রান্ড মুফতিকে আয়াতুল্লাহ মাকারেমের গুরুত্বপূর্ণ চিঠি

  • News Code : 704410
  • Source : নিজস্ব প্রতিবেদক
পবিত্র রমজান মাসে প্রচারিত একটি অনুষ্ঠানে মিসরের আল-আযহার বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রান্ড মুফতি, আহলে বাইত (আ.) এর মাযহাবের উপর যে মিথ্যারোপ করেছেন তার প্রতিক্রিয়ায় তাকে গুরুত্বপূর্ণ একটি চিঠি লিখেছেন ইরানের বিশিষ্ট আলেম ও মারজায়ে তাকলিদ আয়াতুল্লাহ আল-উজমা মাকারেম শিরাজী।

হলে বাইত (আ.) বার্তা সংস্থা -বনা- : পবিত্র রমজান মাসে প্রচারিত একটি অনুষ্ঠানে মিসরের আল-আযহার বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রান্ড মুফতি আহলে বাইত (আ.) এর মাযহাবের উপর যে মিথ্যারোপ করেছেন এর প্রতিক্রিয়ায় গ্রান্ড মুফতিকে গুরুত্বপূর্ণ চিঠি লিখেছেন ইরানের প্রখ্যাত আলেম, লেখক ও মারজায়ে তাকলিদ আয়াতুল্লাহ আল-উজমা নাসের মাকারেম শিরাজি। এতে তিনি বিশ্বের শিয়া ও সুন্নি সম্প্রদায়ের শীর্ষ পর্যায়ের আলেমদের নিয়ে সম্মেলন অনুষ্ঠানের প্রস্তাব দিয়েছেন এবং এতে শিয়া-সুন্নির মাঝে ঐক্য প্রতিষ্ঠার পথে সবচেয়ে বড় বাধা কী তা পর্যালোচনার আহবান জানিয়েছেন।

চিঠিতে বলা হয়েছে : আমরা মনে করি, ঐ অনুষ্ঠানে আপনার বর্ণিত শিয়াদের আকিদা সম্পর্কিত বেশ কয়েকটি বিষয় আলোচনা ও পর্যালোচনার প্রয়োজন রাখে।

আরো উল্লেখ করা হয়েছে, আপনার প্রতি সম্মান রেখেই বলতে চাই যে, এ ধরনের বিষয় গণমাধ্যমে উত্থাপন করাটা শিয়া ও সুন্নিদের মাঝে বিভেদ-বিচ্ছেদ বৃদ্ধির কারণ হবে। আর ইসলামের শত্রুরা এমনটিই আশা করে।

 

মূল চিঠি

বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম

আপনাকে পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানাতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে করছি।

শুরুতেই চলতি বছর রমজান মাসে টিভিতে ইমামত ও সাহাবাদের বিষয়ে শিয়া-সুন্নি বিরোধ সম্পর্ক প্রচারিত অনুষ্ঠানে আপনার উত্তম বর্ণনার জন্য আপনার প্রতি ধন্যবাদ জানাতে চাই। মুসলমানদের মাঝে ঐক্য সৃষ্টির লক্ষ্যে আপনার আপ্রাণ চেষ্টা সত্যই প্রশংসনীয়।

আপনার অনেক মন্তব্য অত্যন্ত সন্তোষজনক; যেমন আপনি বলেছেন : ‘শিয়া-সুন্নি; মুসলিম উম্মাহ’র দু’টি ডানা স্বরুপ’, ‘যা কিছু বর্তমানে শিয়া ও সুন্নির মাঝে ঘটছে তা মুসলমানদেরকে আঘাত করার লক্ষ্যে ঘটানো হচ্ছে’ এবং ‘যতদিন পর্যন্ত শিয়া ও সুন্নিরা শাহাদাতাইনের উপর ঈমান রাখবে আল-আযহার এ দু’টি মাযহাবের মাঝে কোন পার্থক্য করবে না’।

কিন্তু অনুমতি সাপেক্ষে এ অনুষ্ঠানের বিষয়ে আরো কিছু কথা বলতে চাই :

প্রথমতঃ সাহাবাদেরকে গালি-গালাজ করার বিষয়ে আপনি যে মন্তব্য করেছেন সে সম্পর্কে বলতে চাই : শিয়া মাযহাবের কোন মারজায়ে তাকলিদই এ ধরনের কাজকে সমর্থন করে না।

দ্বিতীয়তঃ অনুষ্ঠানে উত্থাপিত শিয়া মাযহাবের আকিদা সংক্রান্ত কিছু বিষয় আলোচনা ও পর্যালোচনার প্রয়োজন রাখে।

আপনার প্রতি সম্মান রেখেই বলতে চাই যে, এ ধরনের বিষয় গণমাধ্যমে উত্থাপন করাটা শিয়া ও সুন্নিদের মাঝে বিভেদ-বিচ্ছেদ বৃদ্ধির কারণ হবে। আর ইসলামের শত্রুরা এমনটিই আশা করে।

এ সকল বিষয় গণমাধ্যমে উত্থাপিত না হয়ে যদি ইলমি ও বিশেষ সভাসমূহে উভয় মাযহাবের আলেমদের উপস্থিতিতে পর্যালোচিত হত তবে কতই না ভাল হত। এ কারণে বিশ্বের শিয়া ও সুন্নি সম্প্রদায়ের শীর্ষ পর্যায়ের আলেমদের নিয়ে সম্মেলন অনুষ্ঠানের প্রস্তাব রাখতে চাই। যাতে শিয়া-সুন্নির মাঝে ঐক্য প্রতিষ্ঠার পথে সবচেয়ে বড় বাধা কী তা পর্যালোচনা সম্ভব হয়। পাশাপাশি ইসলামি ঐক্যকে শক্তিশালী করণে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ গ্রহণ করা যায় এবং সম্মেলন শেষে এর সমাপনী বিবৃতিকে মানা যেন সকল মুসলমানদের আবশ্যক ঘোষণা করা যায়।

আপনি আমার এ প্রস্তাব গ্রহণ করবেন বলে আমি আশাবাদী। যাতে শিয়ারা আপনার কর্তৃক উত্থাপিত বিষয়াদির জবাব গণমাধ্যম ও স্যাটালাইট চ্যানেলের মাধ্যমে দিতে বাধ্য না হয়।

চিঠির শেষে মুসলমানদের ঐক্যের লক্ষ্যে প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখার জন্য আপনাকে পূনরায় ধন্যবাদ দিতে চাই। পাশাপাশি মহান আল্লাহর নিকট আপনার জন্য তাওফিক ও আপনার সর্বাঙ্গিন মঙ্গল কামনা করি।

নাসের মাকারেম শিরাজ-কোম

২৯শে রমজান-১৪৩৬


আপনার মন্তব্য প্রেরণ করুন

আপনার ই-মেইল প্রকাশিত হবে না। প্রয়োজনীয় ফিল্ডসমূহ * এর মাধ্যমে চিহ্নিত করা হয়েছে

*

Mourining of Imam Hossein
پیام رهبر انقلاب به مسلمانان جهان به مناسبت حج 1441 / 2020
conference-abu-talib
We are All Zakzaky