‘আহলে বাইত বার্তা সংস্থা’

সূত্র : Parstoday
সোমবার

৪ মার্চ ২০২৪

৬:১৯:৫৫ PM
1442158

তেল আবিব দিন দিন রাশিয়ার প্রতি আরো বেশি আগ্রাসী হবে

ইহুদিবাদী ইসরাইলের একজন সংসদ সদস্য সতর্ক করে বলেছেন, তেল আবিব ইউক্রেনকে সমর্থন দেয়া জোরদার করার মাধ্যমে রাশিয়ার বিরুদ্ধে দিন দিন আগ্রাসী অবস্থানে যাবে কারণ ইসরাইল সরকার মনে করে- যেকোনভাবেই হোক চলমান গাজা-ইসরাইল যুদ্ধে হামাসের পক্ষে কাজ করছে মস্কো।

ইহুদিবাদী ইসরাইলের একজন সংসদ সদস্য সতর্ক করে বলেছেন, তেল আবিব ইউক্রেনকে সমর্থন দেয়া জোরদার করার মাধ্যমে রাশিয়ার বিরুদ্ধে দিন দিন আগ্রাসী অবস্থানে যাবে কারণ ইসরাইল সরকার মনে করে- যেকোনভাবেই হোক চলমান গাজা-ইসরাইল যুদ্ধে হামাসের পক্ষে কাজ করছে মস্কো।

ইসরাইলি আইনপ্রণেতা আমির ওয়াইটম্যান মার্কিন পত্রিকা বিজনেস ইনসাইডারে লেখা এক নিবন্ধে একথা বলেছেন। তিনি সুস্পষ্ট করে বলেন, রাশিয়ার বিরুদ্ধে ইসরাইল আরো আগ্রাসী অবস্থান নেবে।

ইসরাইলের এই এমপি বলেন, হামাসের সাথে যুদ্ধের কারণে তার সরকারের হাতে দেয়ার মতো গোলাবারুদ নেই কিন্তু ইউক্রেন যুদ্ধ শেষ হওয়ার আগে যদি গাজা যুদ্ধ শেষ হয় তাহলে কিয়েভের কাছে ইসরাইলের অস্ত্র খুঁজে পাওয়া যাবে।

সম্প্রতি খবর বের হয়েছে যে, ইসরাইল ইউক্রেনকে বিমান ও ড্রোন হামলার ব্যাপারে আগাম সতর্ক বার্তা দেয়ার সিস্টেম সরবরাহ করবে। জাতিসংঘে নিযুক্ত ইসরাইলের স্থায়ী প্রতিনিধি গিলাদ এরডান গত বুধবার এই তথ্য প্রকাশ করেন।

ওয়াইটম্যান দাবি করেন, ইসরাইলে এখন যা কিছু ঘটছে তার সাথে রাশিয়া ব্যাপকভাবে জড়িত। একথার মধ্য দিয়ে তিনি মূলত হামাসের প্রতি রাশিয়ার সমর্থনের কথা বোঝাতে চেয়েছেন। 

এর আগে ওয়াইটম্যান গত অক্টোবর মাসে রাশিয়া টুডে-কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, রাশিয়া হামাসকে আমাদের বিরুদ্ধে গণহত্যা চালানোর জন্য সমর্থন দিচ্ছে এবং এ জন্য রাশিয়াকে মূল্য দিতে হবে। ইউক্রেন যাতে বিজয়ী হয় আমরা তা নিশ্চিত করব এবং রাশিয়াকে মূল্য দেয়ার বিষয়টি আমরা অনিবার্য করে তুলব।”

এদিকে, বিজনেস ইনসাইডার বলছে, ইউক্রেনকে বিমান হামলার ব্যাপারে সতর্কবার্তা দেয়ার সিস্টেম সরবরাহ করার সিদ্ধান্ত নিয়ে মূলত ইসরাইল তার পররাষ্ট্রনীতিতে বড় রকমের পরিবর্তনের ইঙ্গিত দিয়েছে। তেল আবিব এখন ইউক্রেনে বিশেষজ্ঞ সেনা পাঠানোর বিষয়টি বিবেচনা করতে পারে।#